রাজধানীতে চক্রাকার বাস সার্ভিস চালু হচ্ছে আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১০ এএম, ২৭ মার্চ ২০১৯

রাজধানীর আজিমপুর-নিউমার্কেট-ধানমন্ডি রুটে গত ২৬ মার্চ থেকে আধুনিক চক্রাকার বাস সার্ভিস চালু হওয়ার কথা থাকলেও তা একদিন পিছিয়ে আজ (বুধবার) থেকে চালু হচ্ছে। আজিমপুর-নিউমার্কেট-ধানমন্ডি রুটের চক্রাকার বাস সার্ভিসটি বুধবার দুপুরে কলাবাগান মাঠ থেকে উদ্বোধন করবেন ঢাকা দক্ষিণ সিপি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন। ডিএসসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা উত্তম কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে বুধবার দুপুরে বিমানবন্দর স্টেশনের সামনে থেকে (পুলিশ বক্সের সামনে) চক্রাকার বাসের উদ্বোধন করবেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম। ডিএনসিসির প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা এ এস এম মামুন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, আজিমপুর-নিউমার্কেট-ধানমন্ডি রুটের চক্রাকার এ বাস সার্ভিসে বিআরটিসির ২০-২৫টি বাস চলাচল করবে। বাসগুলো মোট ৩৬টি স্পটে থামবে এবং নির্ধারিত সময়ের জন্য অপেক্ষা করবে। এসব কাউন্টারে পাঁচ মিনিট পর পর একটি করে বাস আসবে। এছাড়া এ এলাকায় আর অন্য কোনো যাত্রীবাহী বাস চলাচল করবে না।

ধানমন্ডি-নিউমার্কেট-আজিমপুর বাস সার্ভিসের রুট

১. আজিমপুর-নিউমার্কেট-সাইন্সল্যাব-ধানমন্ডি ২ নম্বর রোড, সাত মসজিদ রোড (ঝিগাতলা, সংকর), ধানমন্ডি ২৭, সোবহানবাগ, রাসেল স্কোয়ার, কলাবাগান, সাইন্সল্যাব, বাটা ক্রসিং, কাটাবন, নীলক্ষেত, পলাশী হয়ে আবারও আজিমপুর যাবে বাসটি।

২. সোবহানবাগ-রাসেল স্কোয়ার, কলাবাগান, সাইন্সল্যাব-বাটা ক্রসিং, কাটাবন-নীলক্ষেত, পলাশী, আজিমপুর, নিউমার্কেট, সাইন্সল্যাব, কলাবাগান, সোবহানবাগ, ২৭ নম্বর রোড পূর্ব মাথা থেকে পশ্চিম মাথা, সাত মসজিদ রোড, বিজিবি ২ নম্বর গেইট, ৩ নম্বর রোড ইউটার্ন-সাইন্সল্যাব-বাটা ক্রসিং-কাটাবন, নীলক্ষেত, পলাশী, আজিমপুর হয়ে আবারও নিউমার্কেট যাবে।

চক্রকার এ বাস সার্ভিসের সুবিধা নিয়ে সংশ্লিষ্টরা জানান, ঘন ঘন স্টপেজ দেয়ায় মানুষ অল্প দূরত্বে বাসে যাতায়াত করতে পারবেন। এসি বাস হওয়ায় ধুলাবালি মুক্ত যাতায়াত করা যাবে। রিকশার তুলনায় বাস ভাড়া অনেক কম হবে, এতে যানজটও কমবে। টিকিট ও কাউন্টার সিস্টেম করায় যাত্রী ও পথচারীরাও সুবিধা পাবেন। এর ফলে ধানমন্ডি এলাকায় স্কুল শিক্ষার্থীরাও গাড়ি ব্যবহার না করে কম ভাড়ায় বাসে যেতে পারবে।

বর্তমানে ওই সড়কগুলোতে অনেক সমস্যা রয়েছে উল্লেখ করে তারা বলেন, সড়কে প্রচুর রিকশার কারণে যানজট থাকে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, শপিং মল ও হাসপাতাল এলাকায় প্রচুর প্রাইভেটকার এসে যানজট সৃষ্টি করে।

চক্রাকার বাস পরিচালনার কৌশল

ধানমন্ডি-নিউমার্কেট এলাকায় চক্রকারভাবে চলাচল করা বাসগুলো দুই দরজা বিশিষ্ট হবে। একই সময় সামনে দিয়ে যাত্রীরা উঠবেন এবং পিছনের রাস্তা দিয়ে নামবেন। নির্দিষ্ট কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করে লাইনে দাঁড়িয়ে বাসে উঠবেন যাত্রী। ৫/১০ মিনিট পর পর বাস আসবে। চক্রকার বাস চলাচল করায় একই স্থানে বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকার প্রয়োজন পড়বে না।

রাজধানীর গণপরিবহনে শৃঙ্খলা ফেরানো ও যানজট নিরসনের লক্ষ্যে গত বছর সিনিয়র সচিব জাফর আহমেদ খান স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের স্থানীয় সরকার বিভাগ একটি কমিটি গঠন করে। ১০ সদস্যের এ কমিটিতে ডিএসসিসির মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনকে আহ্বায়ক করা হয়।

এছাড়া কমিটিতে ডিএনসিসির মেয়রকে যুগ্ম-আহ্বায়ক করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- বিআরটিএর চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান, রাজউক চেয়ারম্যান, ডিএমপি কমিশনার, গণপরিবহন বিশেষজ্ঞ ড. এস এম সালেহ উদ্দিন, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি ও ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের নির্বাহী পরিচালক।

এএস/এমএসএইচ/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :