ই-কমার্সের আড়ালে এমএলএম ব্যবসা, আটক ৭

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক চট্টগ্রাম
প্রকাশিত: ১১:৩৮ এএম, ১৯ জুন ২০১৯

ই-কমার্সের আড়ালে ডেসটিনির মতো এমএলএম ব্যবসা পরিচালনার অভিযোগে এনেক্স ওয়ার্ল্ডওয়াইড লিমিটেড নামের একটি কোম্পানির সাত কর্মকর্তাকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৮ জুন) মধ্যরাতে চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানা পুলিশের একটি টিম কাজির দেউড়ি ভিআইপি টাওয়ারের চতুর্থ তলায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে।

আটকরা হলেন- অপু দাশ (২৯), রাজীব দাশ (৩৯), রাজীব তালুকদার (৪০), উজ্জ্বল সেন (৪১), রবিন মিত্র (৩৩), সুমন বিশ্বাস (৩৮) ও রঞ্জিত গুহ (৪৮)।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জাগো নিউজকে বলেন, এনেক্স ওয়ার্ল্ডওয়াইড লিমিটেড নামে কথিত একটি এমএলএম কোম্পানি ই-কমার্সের আড়ালে ডেসটিনির মতো প্রতারণা করে আসছিল। ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে ওই কোম্পানির ৭ জনকে আটক করা হয়।

ctg-detension

পুলিশ জানায়, আটকদের মধ্যে রাজীব তালুকদার এনেক্স ওয়ার্ল্ডওয়াইড লিমিটেডের মার্কেটিং ম্যানেজার (জিএম) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি আগে ডেসটিনি-২০০০ এর ডায়মন্ড এক্সিকিউটিভ ও ডেসটিনি ডিস্ট্রিবিউটর ফোরামের বিভাগীয় সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন। রাজীব দাশ এনেক্স ওয়ার্ল্ডওয়াইড লিমিটেডের পরিচালক। তিনিও ডেসটিনির পিএসডি (প্রফিট শেয়ার ডিস্ট্রিবিউটর) ছিলেন। এ ছাড়া রবিন মিত্র এনেক্স ওয়ার্ল্ডওয়াইড লিমিটেডের চট্টগ্রাম কাস্টমার কেয়ারের ইনচার্জ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি এনেক্স ওয়ার্ল্ডওয়াইডের প্রেসিডেন্ট রাজিব মিত্রের ছোট ভাই। তিনি ছিলেন ডেসটিনির পিএসডি (প্রফিট শেয়ার ডিস্ট্রিবিউটর)।

মূলত প্রতারণা ও বিপুল পরিমাণ অর্থ আত্মসাতের দায়ে বন্ধ ডেসটিনির কথিত ডায়মন্ড এক্সিকিউটিভরা ‘এনেক্স ওয়ার্ল্ডওয়াইড’ নামের প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন। ডেসটিনির আদলে মাল্টিলেভেল মার্কেটিং (এমএলএম) ব্যবসার নামে আবারও প্রতারণা শুরু করেছিল এনেক্স ওয়ার্ল্ডওয়াইড লিমিটেড।

আবু আজাদ/এনডিএস/পিআর