এটিএম বুথ থেকে টাকা তুলতে ‘সাহায্য’ করেন তিনি!

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৩:৪০ পিএম, ২৪ আগস্ট ২০১৯

কখনও এটিএম বুথের ভেতরে, কখনও বাইরে। এটিএম বুথ থেকে যারা টাকা তুলতে পারেন না তাদের ‘সাহায্যের’ জন্য দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করেন তিনি। তাও বিনামূল্যে।

অন্যের টাকা তুলে দিয়ে তার কার্ড নিজের পকেটে ভরেন, নিজের পকেটে থাকা অকেজো কার্ড তার হাতে তুলে দিয়ে চট করে স্থান ত্যাগ করেন। এরপর পিন নম্বর দিয়ে অন্য বুথ থেকে টাকা তোলেন তিনি।

সর্বশেষ প্রতারণার ঘটনাটি ঘটিয়েছেন ফরিদপুরের ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের বুথে। জেলা পুলিশের পর এই প্রতারককে খুঁজতে তদন্ত করছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন ইউনিট।

প্রতারকের ছবিসহ এক পোস্টে ডিএমপি জানায়, ‘ছবিতে চিহ্নিত চেক শার্ট পরিহিত ব্যক্তিটি একজন প্রতারক। সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে তার ছবি সংগ্রহ করা হয়েছে। তাকে গ্রেফতারে পুলিশকে সহায়তার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছে।’

ATM1

‘ছবিতে উল্লেখিত ব্যক্তি ফরিদপুরের বিভিন্ন এটিএম বুথে কৌশলে অবস্থান করে। এটিএম বুথে টাকা উত্তোলন করতে আসা সহজ সরল ও বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারে না এমন গ্রাহককে সে অনুসরণ করতে থাকে। এমন কাউকে দেখতে পেলে সে সাহায্য করার জন্য এগিয়ে আসে। গ্রাহককে সাহায্য করার সময় তার পিন নম্বর জেনে নিয়ে এটিএম থেকে টাকা বের করে দেয়। পরবর্তী সময়ে এটিএম কার্ড ফেরত দেয়ার সময় গ্রাহকের কার্ড পরিবর্তন করে তার কাছে থাকা বাতিল একই রকম কার্ড দেয়। এতে গ্রাহক নিজের কার্ড যে পরিবর্তন হয়েছে তা বুঝতে পারে না। এরপর সে ওই কার্ড দিয়ে অন্য কোনো এটিএম বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করে হাতিয়ে নেয়।’

এভাবে সে ফরিদপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের এটিএম বুথ থেকে সহজ সরল গ্রাহকদের ঠকিয়ে জালিয়াতির মাধ্যমে অনেক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

ডিএমপি জানায়, শনিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। কেউ তাকে শনাক্ত করতে পারলে কিংবা পরিচয় জানলে সদর সার্কেল ফরিদপুর এর (০১৭১৩ ৩৭ ৩৫ ৫৩) নম্বরে জানানোর অনুরোধ করা হচ্ছে।

এআর/জেএইচ/এমএস