অর্থ ও ষড়যন্ত্র দিয়ে ধর্ম প্রচার করা যায় না

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৬:৫১ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৯

জাকের পার্টি চেয়ারম্যান পীরজাদা মোস্তফা আমীর ফয়সল মুজাদ্দেদী বলেছেন, অর্থ ও ষড়যন্ত্র দিয়ে ধর্ম প্রচার করা যায় না। জনগণের হৃদয় পাওয়া যায় না। ওলি-আউলিয়াগণ ধর্ম প্রচারে টাকার বস্তা নিয়ে আসেননি। তারা খোদার শক্তি দ্বারা সত্য প্রতিষ্ঠার জন্য নিজেদের জীবন বিসর্জন দিয়েছেন।

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) ও জাকের পার্টির ৩০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে তিনি এসব কথা বলেন।

রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন জাকের পার্টির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ড. সায়েম আমীর ফয়সল। দুর্যোগময় প্রকৃতি উপেক্ষা করে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীর উৎসবমুখর আবহে প্রথমে আল্লাহু আকবার, কলেমা তৈয়্যাবা এবং জাকের পার্টির পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে পায়রা ও বেলুন ওড়ানো হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জাকের পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব অক্ষুণ্ন রাখার প্রয়াসে বৃহত্তর জনগোষ্ঠী মুসলমানদের নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। অন্যান্য ধর্মের সকলকেও মর্যাদা সহকারে ঐক্যের মঞ্চে রাখতে হবে। আমরা এদেশের সকলের ধর্মীয় অধিকারে বিশ্বাস করি। তবে আমাদের স্বকীয়তা ও স্বাতন্ত্র্য রক্ষায় কারও সঙ্গে আপস করি না। আমরা বাংলাদেশের মুসলমানদের যেমন ঐক্যবদ্ধ রাখব তেমনি অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের ভালোবাসার চাদরে বুকে রাখব। মদিনা সনদ সকলকে খেয়াল রাখতে হবে।

পীরজাদা মোস্তফা আমীর ফয়সল মুজাদ্দেদী বলেন, আপনারা যারা ক্ষমতার নেশায় রাজনীতি করেন, আপনাদের প্রতি অনুরোধ আপনারা দয়া করে এ ধরনের রাজনীতি পরিহার করুন। প্রতিভাবান নতুন প্রজন্ম আসছে। তাদের নেতৃত্বে রাজনীতিতে গুণগত পরিবর্তনের সূচনা করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ক্ষমতায় কারা থাকলে ভালো হবে জাকের পার্টি তা যথাযথভাবে জানে। মুসলমান হয়ে মুসলমানের ওপর বোমা হামলা এটা ইসলামের আদর্শ নয়। ইসলাম এসেছে উদারতার মধ্য দিয়ে। সারা পৃথিবীর মুসলমান যদি এক হয় তাহলে সেই ঐক্য অনেক বড় অর্জন এনে দিতে পারে। ধনী মুসলিম দেশগুলো যদি গরিব মুসলিম দেশগুলোকে অর্থনৈতিক সহযোগিতা দেয় তাহলে আর কিছু লাগে না।

জাকের পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, যেনতেনভাবে ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য জাকের পার্টি প্রতিষ্ঠা হয়নি। আমরা কাগুজেবাঘ নই। উপমহাদেশে অস্থিরতার পদধ্বনি দেখা যায়। বাংলাদেশের ওপরও ষড়যন্ত্রের ঘনঘটা টের পাওয়া যায়। এমতাবস্থায় যদি প্রয়োজন হয় জাকের পার্টির নেতাকর্মীরা দেশরক্ষায় অবশ্যই ঝাপিয়ে পড়বে ইনশাআল্লাহ্।

সভাপতির বক্তব্যে জাকের পার্টির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ড. সায়েম আমীর ফয়সল বলেন, বাংলাদেশে রাজনীতি আছে, কিন্তু নীতি নেই। অর্থনীতি আছে, কিন্তু নীতি নেই। যদি উভয় ক্ষেত্রে নীতি আনতে হয় তাহলে জাকের পার্টির প্রয়োজন হবে। আমাদের সবকিছুই স্বচ্ছ।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন প্রদত্ত সর্বশেষ গণপ্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ অনুযায়ী জাকের পার্টির সকল পর্যায়ের কমিটিতে ৩৩.৩৩ ভাগ নারী নেতৃত্ব রয়েছে।

ড. সায়েম আমীর ফয়সল বলেন, এদেশের ৯২ ভাগ মানুষ মুসলমান। জনজীবনে শৃঙ্খলা আনতে হলে তা আইনের মাধ্যমে পুরোপুরি সম্ভব নয়। কেবল প্রকৃত ইসলামের আদর্শ অনুসরনেই তা সম্ভব।

তিনি বলেন, উগ্র ডানপন্থী আছে। উগ্র বামপন্থী আছে। কিন্তু দেশকে এগিয়ে নিতে হলে প্রগতিশীল ইসলামী শক্তির প্রয়োজন হবে। জাকের পার্টিই সেই প্রগতিশীল ইসলামী শক্তি।

বিএ/এমকেএইচ