প্রার্থিতা ফিরে পেলেন আনছার রহমান শিকদার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:৩২ পিএম, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

ঢাকা-৫ আসনের উপনির্বাচনে বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. আনছার রহমান শিকদারের প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ছয় হাজার টাকার ঋণ খেলাপি তিনি— এমন অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২০ সেপ্টেম্বর তার প্রার্থিতা বাতিল করে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই সংক্রান্ত ইসি কমিটি।

২২ সেপ্টেম্বর আনছার রহমান শিকদারের পক্ষে তার আইনজীবীরা নির্বাচন কমিশনে আপিল করেন। সেই আপিলের ওপর শুনানি শেষে তার প্রার্থিতা বৈধ ঘোষণা করা হয়।

ইসির আপিলে আইনজীবী হিসেবে শুনানিতে ছিলেন বাংলাদেশ কংগ্রেসের সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেন ও মহাসচিব অ্যাডভোকেট ইয়ারুল ইসলাম। বিষয়টি জাগো নিউজকে নিশ্চিত করেন ঢাকা দক্ষিণের সাবেক মেয়র প্রার্থী ও সাংবাদিক আখতারুজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লাহ।

এ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন মোট সাতজন। এর মধ্যে পাঁচজনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা। দুজনের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করা হয়। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহার করা যাবে। আগামী ১৭ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ইভিএমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠান হবে। এ বিষয়ে ঢাকার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও ঢাকা-৫ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা জি এম মাহাতাব উদ্দিন বলেন, ঢাকা-৫ আসনে মোট সাতজন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। বাছাইয়ে দুজনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। একজন প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ায় এখন প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়াল ছয়জনে।

তারা হলেন- আওয়ামী লীগের কাজী মনিরুল ইসলাম, বিএনপির সালাউদ্দিন আহমেদ, জাতীয় পার্টির মীর আবদুস সবুর, গণফ্রন্টের এইচ এম ইব্রাহিম ভূঁইয়া, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আরিফুর রহমান এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের আনছার রহমান শিকদার।

প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের (পিডিপি) লুৎফুর রহমানের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

গত ৬ মে হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে ঢাকা-৫ আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়।

এফএইচ/এমএআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]