সবার প্রচেষ্টায় জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি মিলেছে : আতিকুল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:০১ পিএম, ২২ জুন ২০২১ | আপডেট: ০৭:১৮ পিএম, ২২ জুন ২০২১
ফাইল ছবি

সবার আন্তরিক প্রচেষ্টার ফলে প্রবল বৃষ্টিপাতেও জলজটের ভোগান্তি থেকে নগরবাসীকে মুক্ত রাখা সম্ভব হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আতিকুল ইসলাম।

মঙ্গলবার (২২ জুন) দুপুরে গুলশানের নগর ভবনে নিজ কার্যালয়ে দিনভর প্রবল বৃষ্টিতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন এলাকার সার্বিক অবস্থা সম্পর্কে খোঁজখবর নিতে গিয়ে ডিএনসিসি মেয়র একথা বলেন।

তিনি বলেন, অন্যান্য বছর সামান্য বৃষ্টিতেই ডিএনসিসির বিভিন্ন এলাকায় রাস্তা-ঘাট ডুবে যেত, জলজটে নগরবাসীকে অনেক ভোগান্তি পোহাতে হতো। কিন্তু এবার রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টিতেও নগরবাসীকে জলাবদ্ধতার সমস্যায় ভুগতে হচ্ছে না।

আতিকুল ইসলাম বলেন, আজ ২৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হলেও নৌবাহিনী সদরদফতর প্রধান সড়ক, গলফ হাইট প্রধান সড়ক, সেতু ভবন প্রধান সড়ক, নাখালপাড়া, কালাচাঁদপুর, বারিধারা, বেগম রোকেয়া সরণি, কচুক্ষেত, আনসার ক্যাম্প-দারুস সালাম রোড, মগবাজার, বেপারিপাড়া, উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টরসহ ডিএনসিসির প্রায় সব এলাকাই জলজটমুক্ত ছিল।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, তিনি কথায় নয়, কাজে বিশ্বাসী বলেই ১ জুন ঢাকায় দীর্ঘ সময় ধরে রেকর্ড ৮৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হলেও দ্রুততম সময়ের মধ্যেই নগরবাসীকে জলজট থেকে মুক্ত করা সম্ভব হয়েছে।

তিনি বলেন, নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন এবং দূষণ নিয়ন্ত্রণে স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন কাজ করছে। ইতোমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় খাল উদ্ধার ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম শুরু হয়েছে, জনগণের সহায়তায় তা অব্যাহত থাকবে। একটি সুস্থ, সুন্দর নগরী গড়ে তোলার জন্য সবাইকে দায়িত্ববান হতে হবে, নিজ নিজ অবস্থান থেকে জনকল্যাণে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।

এমএমএ/এআরএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]