সাংবাদিককে মারধর: এসপিএ ডায়াগনস্টিক বন্ধে মত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১১:১৯ পিএম, ১০ আগস্ট ২০২২
সাংবাদিক হাসান মেসবাহ (বামে) ও ক্যামেরাপারসন সাজু মিয়া

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে এসপিএ ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হাসপাতালে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় হাসপাতালটি বন্ধের পক্ষে মত দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বুধবার (১০ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের একটি টিম ওই হাসপাতালটি পরিদর্শন শেষে সেটি বন্ধ করে দেওয়ার পক্ষে মত দেন তারা।

পরিদর্শন শেষে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানায়, প্রতিষ্ঠানটি বাইরে থেকে তালাবদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। ‘অনাকাঙ্ক্ষিত কারণে সব ধরনের ডায়াগনস্টিক কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দুঃখিত’- এরকম একটি নোটিশ দেখতে পাওয়া যায়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আরও জানায়, কামরাঙ্গীরচরের ওই ঠিকানায় ‘এসপিএ মেডিকেল সেন্টার’ নামের একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ২০১৮-১৯ অর্থবছরে লাইসেন্সের জন্য আবেদন আছে, যা অসম্পূর্ণ এবং কোনো কাগজপত্র আপলোড করা হয়নি। প্রতিষ্ঠানটির মালিক দেওয়ান মো. আবু জাহিদ। তবে ডা. এইচ এম ওসমানী নামের অভিযুক্ত ব্যক্তিকে না পেয়ে তার সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলে জানা যায়, তিনি সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটি কিনে নিয়েছেন এবং নতুন নাম “এসপিএ রিভারসাইড মেডিকেল সেন্টার” নামে নামকরণ করেছেন। প্রতিষ্ঠানটিতে দুটি নামেই সাইনবোর্ড দেখা যায়।

যেহেতু প্রতিষ্ঠানটির (ডায়াগনোস্টিক সেন্টার) কোনো লাইসেন্স নেই, ফলে এটি বন্ধ করার নির্দেশনা দেওয়া যেতে পারে বলে জানায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

গতকাল মঙ্গলবার এসপিএ ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও হাসপাতালে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক হাসান মিসবাহ ও ক্যামেরাপারসন সাজু মিয়া হামলা ও মারধরের শিকার হন। তাদের গাড়িতেও ভাঙচুর চালানো হয়েছে।

দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় বুধবার সকালে ১০ থেকে ১৫ জনের বিরুদ্ধে কামরাঙ্গীরচর থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী সাংবাদিক হাসান মিসবাহ। পুলিশ বলছে, হামলায় জড়িত চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। গ্রেফতার চারজনকে তিনদিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। তারা হলেন- প্রতিষ্ঠানটির মালিক এইচ এম ওসমানী ও দেওয়ান মো. আবু জাহিদ এবং অন্য দুজন রাসেল দেওয়ান ও মো. মাসুম।

এছাড়া সাংবাদিকদের ওপর হামলায় সহযোগিতার অভিযোগে কামরাঙ্গীরচর থানার এসআই মিলন হোসেনকে এরইমধ্যে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। 

এএএম/এমকেআর

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।