ড. কামালদের পাঁচ দফার গুরুত্ব নেই আ.লীগে

ফজলুল হক শাওন
ফজলুল হক শাওন , বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:২১ এএম, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ডা. একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর যুক্তফ্রন্ট ও ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যপ্রক্রিয়া ঘোষিত পাঁচ দফা দাবি ও ৯টি লক্ষ্যকে সামনে রেখে নতুন যে পথচলা সেটাকে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে না ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগ অনঢ় অবস্থানে আছে। নেতারা বললেন, তারা এমন কিছু দাবি দাওয়া করেছেন যেগুলো কোনো ক্রমেই মানা সম্ভব হবে না।

আওয়ামী লীগ নেতারা ‘বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যে’র শুভ কামনা জানালেও সাফ বলে দিয়েছেন, যে সংবিধানের বাইরে গিয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করার কোনো সুযোগ নেই।

শনিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাতে গণভবনে আয়োজিত নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বৈঠকে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের শুভ কামনা জানান।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আওয়ামী লীগের একজন কেন্দ্রীয় নেতা জাগো নিউজকে বলেন, ড. কামাল হোসেন ও বি. চৌধুরীর যুক্তফ্রন্টের কোনো সভা-সমাবেশে বাঁধা না দিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন দলীয় প্রধান।

তিনি বলেন, জামায়াতে ইসলামকে বাদ দিয়ে যেহেতু এ জোট গঠন হয়েছে, আমরা স্বাগত জানাই। তারা কোথাও সভা-সমাবেশ করতে চাইলে করুক, আমরাও দেখি তারা কতজন লোক উপস্থিত করতে পারেন। সভা-সমাবেশের ব্যাপারে কেউ যেন তাদের বাঁধা না দেয় সেদিকে সতর্ক থাকতে হবে।

জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) ফারুক খান জাগো নিউজকে বলেন, সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করে নির্বাচনের যে কথা তারা বলেছেন, এগুলো মানা সরকারের পক্ষে সম্ভব না। যৌতিক কোনো দাবি করলে, বিবেচনা করা যেত। অনৈতিক কোনো দাবি আওয়ামী লীগ মানবে না। তবে জামায়াতকে বাদ দিয়ে জোট গঠন করায় রাজনৈতিক অঙ্গনে তাদের স্বাগত জানান সাবেক এ বাণিজ্যমন্ত্রী।

দলের আরেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, তাদের জোট গঠন নিয়ে আমরা মোটেও বিচলিত নই। তাদের রাজনীতিতো আজ নতুন না। পুরোনো মানুষগুলো নতুন করে এক জোট করেছেন।

তিনি বলেন, যুক্তফ্রন্টের দাবিগুলে সংবিধানের সঙ্গে কোনও ব্যত্যয় সৃষ্টি করে কিনা, তা দেখা হবে। সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক এমন দাবি মানা সম্ভব না।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ বলেন, নির্বাচন হবে, সংবিধান অনুযায়ীই। সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক কোনও দাবি মেনে নেওয়া সম্ভব হবে না। যে জোট-ফ্রন্ট যেই দাবিই তুলুক, সেটা আওয়ামী লীগ মানবে না।

তিনি বলেন, রাজনীতি করার অধিকার সবার আছে। আমার কাছে তাদের রাজনীতি নতুন নয়।

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমাদের নেত্রী তো বলেই দিয়েছেন উনাদের যদি কোনো সহযোগিতা করতে হয় করব। কিন্তু তারা শেখ হাসিনার পদত্যাগ, নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ, সংসদ ভেঙে দেয়াসহ যতগুলো দাবি করেছেন অধিকাংশ দাবিই মেনে নেয়া সম্ভব না।

এফএইচএস/এনডিএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :