৩০ ডিসেম্বর অতি কালো দিবস : মান্না

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৫৪ পিএম, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ‘২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের ভোট রাতেই হয়ে যায়, তাই ওই দিন আমাদের প্রতিবাদ করার সময়। বাম দলগুলো ৩০ ডিসেম্বরকে কালো দিবস ঘোষণা করেছে। আমি বলি, এটা অতি কালো দিবস। এই বিজয়ের মাসে আমরা আনন্দ যেমন করব একই সঙ্গে জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য লড়াই করব।

শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

দেশের শ্রমিক সংগঠনগুলোর কাছে আহ্বান জানিয়ে মান্না বলেন, ‘আপনারা পাটকল শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ান। যাদের চাকরি চলে যায় তাদের পাশে দাঁড়ান। একটা ন্যায্য দাবি আদায়ের জন্য এই দেশের পাটকল শ্রমিকরা আন্দোলন করতে করতে একজন মারা গেছেন এবং অন্তত ৪০ জন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এক সময় এ দেশের পাটকে সোনালি আঁশ বলা হত। বর্তমানে সেটি ধ্বংস হয়ে গেছে। পাটকল চালু আছে কিন্তু পাটকল শ্রমিকদের মজুরি এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। এর জন্য তারা গত ১০ বছর যাবৎ সংগ্রাম করছে।’

সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আপনারা যত মিথ্যাচার করবেন তত ধরা খাবেন। একেবারে গুষ্টিসুদ্ধ ধরা খাওয়ার আগে ভালো হয়ে যান। আপনারা দেশের জনগণের জন্য কোনো ভালো কাজ করেননি। কেবল ঘুরে ঘুরে কথা বলেন। আপনাদের হাতে দেশের জনগণ ও সার্বভৌমত্ব নিরাপদ নয়। অতএব আপনারা চলে যান। আমরা এ দেশেকে সোনার বাংলায় রাখতে চাই, শান্তির দেশ বানাতে চাই।’

খালেদা জিয়ার জামিন প্রসঙ্গে মান্না বলেন, ‘বেগম খালেদা জিয়াকে জামিন দেয়া হয় নাই। তিন তিনবারের প্রধানমন্ত্রী এত অসুস্থ, সেই মানুষ জামিন পায় না এই দেশে। অথচ ১০ বছরের সাজা মাথায় নিয়ে এখনও মন্ত্রিত্ব করে বেড়াচ্ছেন। এটা কোনো দেশ হলো? এ দেশে মামলা নিয়ে এমপি হয়, শত শত কোটি টাকার ঋণখেলাপিরা মন্ত্রী হয়ে যাচ্ছে। আর আড়াই কোটি টাকার মামলায় বিরোধী দলের নেতারা জেলে থাকছেন।’

কেএইচ/জেডএ/পিআর