তারেকের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ, দল ছাড়ার হুমকি দীপেন দেওয়ানের

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:৪২ এএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০

দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান রাঙ্গামাটি জেলা বিএনপির সাথে স্কাইপি বৈঠকের পর স্থানীয় নেতাদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, রাঙ্গামাটি জেলা বিএনপির একটি অংশকে বাদ দিয়ে গত মঙ্গলবার তারেক রহমান এ স্কাইপি বৈঠক করেন। বৈঠকে জেলার কাউন্সিলের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। তবে এ সিদ্ধান্তে অপমানবোধ করছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ ধর্মবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট দীপেন দেওয়ান।

সূত্র জানায়, তারেক রহমান রাঙ্গামাটি জেলা বিএনপির ২৫ জনকে নিয়ে স্কাইপি বৈঠক করে কাউন্সিলের জন্য যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাতে জেলার আরও গুরুত্বপূর্ণ নেতারা মতামত দিতে না পারায় তারা বেশ অপমানবোধ করছেন, ক্ষুব্ধ হয়েছেন। জিয়াউর রহমানের সন্তানের এমন সিদ্ধান্তে কেউ কেউ অবাকও হয়েছেন।

ওয়ান ইলেভেনের সময় চাঁদপুর জেলা যুগ্ম জজের চলতি দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে তৎকালীন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী আ ন ম এহসানুল হকের মধ্যস্থতায় রাঙ্গামাটি ফিরে বিএনপিতে যোগ দেন অ্যাডভোকেট দীপেন দেওয়ান। দলে যোগ দিয়ে তৃণমূল নেতাদের সুসংগঠিত করেছেন। সংগঠনকে শক্তিশালী করেছেন, বর্তমানে দলের কেন্দ্রীয় সহ ধর্মবিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছেন। তার মতো একজন নেতার মতামত না নিয়ে জেলা বিএনপি নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়েছেন তিনি। হতাশাও প্রকাশ করেছেন।

এ অবস্থায় দীপেন দেওয়ান বুধবার নয়াপল্টনে প্রধান কার্যালয়ে গিয়ে দফতরের দায়িত্বে থাকা রিজভী আহমেদের সাথে দেখা করে দলীয় প্রধানের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ চেয়েছেন। সেখানে তিনি বলেছেন, যেভাবে কাউন্সিলের সিদ্ধান্ত হয়েছে এটা আমাদের জন্য অপমানজনক। এ সিদ্ধান্ত বাতিল না হলে আমার আর এ দল করা হবে না। জেলার আরও অনেক নেতাকর্মীও এ সিদ্ধান্তের পুর্নবিবেচনা চেয়েছেন। তারা আশা করছেন, দলের গঠনতন্ত্র মোতাবেক জেলার কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে।

দল ছাড়ার বিষয়ে জানতে চাইলে দীপেন দেওয়ান জাগো নিউজকে বলেন, মঙ্গলবার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আমাদের নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেছেন (স্কাইপির মাধ্যমে)। সেখানে একটা সিদ্ধান্ত হয়েছে যেটা আমাদের অনেকে জানে না। রিজভী ভাইয়ের সাথে দেখা করেছি, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছি। উনি আশ্বস্ত করেছেন, আমাদের কথা বলিয়ে দেবেন। আমি আশা করি তাকে বিষয়টা বুঝিয়ে বললে তিনি বুঝবেন। তিনি হয়তো কিছুটা অন্ধকারে আছেন, তাই কথা বলতে চেয়েছি।

ক্ষুব্ধ বা দল ছাড়ার মনোভাব কি রিজভী আহমেদ বা দলের হাইকমান্ড জানে? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রিজভী ভাইকে বলেছি, যদি এই সিদ্ধান্ত বাতিল না করা হয় তবে রাজনীতি করে কী করব? আমার দ্বারা এ দল করা হবে না।

কবে নাগাদ আপনারা ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন, এ বিষয়ে রিজভী আহমেদ কী কোনো ধারণা দিয়েছেন? জবাবে দীপেন দেওয়ান বলেন, না, আবার যোগাযোগ করব।

কেএইচ/আরএস/এমএস