৫ মে ভুলে যাইনি : হেফাজতে ইসলাম


প্রকাশিত: ১০:৫৩ এএম, ২৫ মার্চ ২০১৬

২০১৩ সালের ৫ মে ঢাকায় হেফাজতে ইসলামের সমাবেশে সরকারের মদদে গণহত্যার কথা আমরা ভুলে যাইনি। ইসলাম বিরোধী কোনো ষড়যন্ত্র তৌহিদী জনতা মেনে নেবে না। রক্ত দিয়ে হলেও রাষ্ট্র ধর্ম ইসলাম বাদ দেয়ার ষড়যন্ত্র রুখে দেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন হেফাজতে ইসলামের নেতারা।
 
বৃহস্পতিবার জুমা নামাজ শেষে রাজধানীস্থ জাতীয় মসজিদ বায়তুল মুকাররমের দক্ষিণ গেটে বিক্ষোভ করেছে ইসলামিক সংগঠন হেফাজতে ইসলাম। সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে এ হুঁশিয়ারি জানায় হেফাজত নেতারা।

Hefaj
 
বাংলাদেশের সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম বহাল ও ইসলাম বাদ দেয়ার ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে এ সমাবেশের ডাক দেয় হেফাজতে ইসলাম। হেফজাত ছাড়াও ইসলামী শাসনতন্ত্র নেতাকর্মীরাও একই দাবিতে সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন।
 
হেফাজতের সমাবেশ উপস্থিত ছিলেন খেলাফত মজলিস সেক্রেটারি মাওলানা আব্দুল কাদের, খেলাফত আন্দোলনের যুগ্ম মহাসচিব মজিবুর রহমান হামিদী, জমিয়ত ওলামা ইসলাম এর সহ-সভাপতি আব্দুর রব ইউসুফি, হেফাজতে ইসলামের ঢাকা মহানগরীর সভাপতি আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী, ঢাকা মহানগরীর যুগ্ম মহাসচিব জোনায়েদ আল হাবিব, ও মতিউর রহমান গাজীপুরি।

/Hefajot
 
খেলাফত মজলিস সেক্রেটারি মাওলানা আব্দুল কাদের বলেন, বাংলাদেশের ৯০ শতাংশ মানুষ মুসলমান। সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে যদি সরকার গঠিত হতে পারে তবে কেন রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম হবে না।
 
হেফাজতে ইসলামের ঢাকা মহানগরীর সভাপতি আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী বলেন, আমরা এই জালিম সরকারের অনেক নির্যাতন সহ্য করেছি। রক্ত দেবো কিন্তু ইসলামের বিরুদ্ধে কোনো ধরনের ষড়যন্ত্র সহ্য করা হবে না।

Hefajot
 
তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, আমরা ৫ মের হেফাজতের সমাবেশে সরকারের নাশকতা ও নারকীয় হত্যাকাণ্ডের কথা ভুলে যাইনি। ইসলাম প্রশ্নে কোনো আপোষ মেনে নেবে না এ দেশের তৌহিদী জনতা। আদালত বুঝি না, নির্বাহী আদেশ কি বুঝি না, ইসলাম রাষ্ট্রধর্ম ছিল থাকবে। এতে কতো রক্ত ঝরে ঝরবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।
 
জমিয়ত ওলামা ইসলাম এর সহ-সভাপতি আব্দুর রব ইউসুফি বলেন, দেশের রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, সরকার দলীয় নেতা, বিরোধী দলীয় নেতা সবাই তো মুসলমান। তবে কেন রাষ্ট্রধর্ম নিয়ে এতো ষড়যন্ত্র? আমরা ধর্মপ্রাণ মুসলমাণভাবে শান্তিপূর্ণ মিছিল ও সমাবেশ করলাম। এরপরেও যদি সরকারের টনক না নড়ে তবে আবারো বড় ধরণের কর্মসূচীতে যাবে হেফাজত, উল্লেখ করেন তিনি।

Hefajot
 
হেফাজতের দাবি তাদের সমাবেশে ৩৫ থেকে ৪০ হাজার নেতাকর্মী ইসলামপ্রিয় মুসল্লি অংশ নিয়ে রাষ্ট্র ধর্ম ইসলামের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদ জানিয়েছে।
 
উল্লেখ্য, বাংলাদেশের সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম বাতিলের ষড়যন্ত্র বন্ধ এবং রাষ্ট্রধর্মের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টের কার্যতালিকায় থাকা রিট মামলা বাতিলের দাবিতে ২৫ মার্চ সারাদেশে বিক্ষোভের ডাক দেয় হেফাজতে ইসলাম।


 
জেইউ/এসকেডি/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :