ভালোবাসার মনোবৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:০৩ পিএম, ১৩ আগস্ট ২০২০

প্রেম, ভালোবাসা, পেয়ার, মোহাব্বত শব্দগুলো শুনলেই প্রেমিক হৃদয়ে দোলা দিয়ে উঠে। যারা কাঙ্খিত মানুষের ভালোবাসা পান তাদের হৃদয়ে সুখের দোলা দেয় আর যারা পান না বা না পেয়ে হারিয়ে ফেলেন তাদের হৃদয়ে হাহাকারের সুর বেজে উঠে। আবার কোনো হৃদয়ে এ ভালোবাসা পাওয়ার জন্য আকুলতা-ব্যাকুলতার সীমা ছাড়িয়ে কল্পনার রাজ্যে মনের প্রেয়সীর ছবি আঁকেন।

ভালোবাসা কেউ পেয়ে হয় আনন্দে মাতোয়ারা আর কেউ হারিয়ে ধরে বোতল না হয় কলম। আবার এ ভালোবাসা কেউ পেয়ে পস্তায়, কেউ হারিয়ে পস্তায় আবার কেউবা পাওয়ার জন্য শতবার পস্তাতে থাকে।

তো এ ভালোবাসা নিয়ে কতশত কবি, সাহিত্যিক কতশত গল্প কবিতা রচনা করেছেন। কারো রচনায় ভালোবাসার মধুরতা প্রকাশ পেয়েছে তো অন্যকারো রচনায় ভালোবাসার তিক্ততা। আবার কারও রচনায় আঙুর টক রকমের ভালোবাসার বর্ণনা প্রকাশ পেয়েছে।

‘সখি ভালোবাসা কারে কয় সেকি কেবলি যাতনা ময়’ আসলেই ভালোবাসার সংজ্ঞা কী। স্কুল জীবনে কোথাও একটা সংজ্ঞা পড়ছিলাম সেটা হলো- ভালোমন্দ বিবেচনা না করিয়া, লজ্জা শরমের মাথা খেয়ে বাবা মায়ের অবাধ্য হয়ে, সাগর সমান জলে নেমে যাহা রচিত হয় তাহাই ভালোবাসা’

মনকে কেন্দ্র করেই ভালোবাসার রং বদলায়। বদলে যায় মানুষের আচরণ থেকে শুরু করে দৃষ্টিভঙ্গি। মন নিয়েই যেহেতু ভালোবাসার বেচাকেনা তাই মনোবিজ্ঞানীরাই বা বাদ যাবেন কেন। ভালোবাসার এ রকম লীলাখেলার প্যাচে পড়ে বিভিন্ন মনোবিজ্ঞানী ও ভালোবাসা নিয়ে বিভিন্ন তত্ত্ব আবিষ্কার করেছেন। এখানে একজন মনোবিজ্ঞানীর ভালোবাসার একটি তত্ত্ব সবার সাথে শেয়ার করব।

আমেরিকান মনোবিজ্ঞানী, কর্নেল ইউনিভার্সিটির প্রফেসর রবার্ট জে. স্টানবার্গ ১৯৮৫ সালে ভালোবাসার একটি ত্রিমাত্রিক তত্ত্ব দিয়েছেন যেটা Triangular theory love নামে পরিচিত। স্টানবার্গের মতে, আন্তঃব্যক্তিক সম্পকর্কে ভালোবাসা ৩টা dymention এর উপর ভিত্তি করে আবর্তিত হয়।

অন্তরঙ্গতা: এটার মানে হলো Feeling of closeness, attachment and contentedness. সোজা কথা হলো কাছে থাকার আকুলতা আর ব্যাকুলতার অনুভূতি।

আবেগ: তীব্র আকাঙ্খা যেটা আমাদের রোমান্স, শারীরিক আকর্ষণ, যৌন সম্পর্কের দিকে ধাবিত করে।

প্রতিশ্রুতি: জীবনে-মরণে, ঝড় তুফানেও পাশে রবে দু’জনে। মানে হলো সম্পর্কটাকে দীর্ঘমেয়াদে শেষ পর্যন্ত চালিয়ে নেয়ার তীব্র বাসনা, অনুভূতি।

এই তিনটিকে Sternberg সমসত্ত্ব ও অসমসত্ব মিশ্রন করে ৮ রকমের ভালোবাসার সংজ্ঞা দিয়েছেন। চলুন আমরা সেগুলা দেখি এবং নিজে কোনো রকমের ভালোবাসা পাচ্ছি বা দিচ্ছি সেটা মিলিয়ে নেই।

Nonlove: মানে কোনো ভালোবাসা নেই। উপরের তিনটি উপাদানের একটিও এখানে নাই। উদাহরণ হিসেবে বলতে পারি আপনাদের সাথে এই মুহূর্তে আমার সম্পর্কটা। আপনারা আমার এই লেখাটা পড়ছেন। আপনাদের সাথে আমার অন্তরঙ্গতা, আবেগ এবং প্রতিশ্রুতি কিছুই নেই।

Liking: এখানে শুধু অন্তরঙ্গতা বা Intimacy থাকে। কাছাকাছি থাকার তীব্র ইচ্ছে থাকে, আবেগ আর প্রতিশ্রুতির কোনো বালাই নেই। আপনার কারও সঙ্গে ঘুরতে ভালো লাগে, ভালো মন্দ শেয়ার করতে ভালো লাগে কিন্তু রোমান্টিকভাবে জড়িত না বা কোনো সম্পর্কে জড়ানোর প্রতিশ্রুতি নেই। আমাদের এ রকম অনেক সম্পর্ক থাকতে পারে যেখানে আমাদের অন্য কারো সঙ্গে কথা বলতে ভালো লাগে, তার সঙ্গ উপভোগ করি।

Infatuated love (প্রফুল্ল প্রেম): এখানে শুধু আবেগ থাকে শুধু বাকি ২টা থাকে না। আহারে আবেগ, এত আবেগ কোথা থেকে আসে। যে আবেগ ভুলে জাতি, কূল ও মান, তোমারে করিব দেহ মন দান। তো সেই ক্রাশ খাওয়া ভালোবাসা হলো Infatuated ভালোবাসা। শুধু যৌন সম্পর্ক স্থাপন এ ধরনের ভালোবাসার মধ্যে পড়ে যেহেতু এখানে শুধু জাগতিক সুখ পাওয়ার মধ্যেই চাহিদা সীমাবদ্ধ থাকে অন্যকিছু না।

Empty love (খালি প্রেম) এখানে শুধু প্রতিশ্রুতি থাকে। Intimacy and passon থাকে না। ‘ছাড়বো না কবু এ বাঁধন, আসলে আসুক ঝড় তুফান’ কিন্তু ওইদিক প্রিয়তম নিজেকে বাঁচানোর জন্য নিরাপদ দূরত্বে চলে গেছে।

Arranged marrige শুরু হয় Empty ভালোবাসা দিয়ে যেখানে শুধুই একটা কাবিননামা থাকে। কিন্তু সময়ের পরিক্রমায় সেখানে আবেগ এবং অন্তরঙ্গতার সমসত্ত্ব একটা মিশ্রণ তৈরি হয় যার উপর ভিত্তি করে দু’মেরুর ২ জন যুগ যুগ ধরে সুখের সাগরে ঢুবে আর ভাসে, ভাসে আর ডুবে।

অসুখী বৈবাহিক সম্পর্কগুলো এ ধরনের ভালোবাসার মধ্যে পড়ে যেখানে শুধু বৈবাহিক প্রতিশ্রুতি রক্ষা করার জন্য, সামাজিকতা রক্ষা করার জন্য বা অর্থনৈতিক চাহিদা পূরণ করাই মূল উদ্দেশ্য হয়ে থাকে। আবার হয়তবা অনেকেই সন্তানদের কথা চিন্তা করে অসুখী বৈবাহিক সম্পর্ক চালিয়ে যায় যেখানে কোনো আবেগ থাকে না, যৌন আকাঙ্খার বহিঃপ্রকাশ হয় না।

Romantic love: আহা নামটা শুনেই হৃদয়ে দোলা দিয়ে উঠে। আমরা অনেক সময় বলি ‘wow! What a romantic love!’ কি মনে হচ্ছে সবচেয়ে আকাঙ্খিত ভালোবাসা। রোমান্টিক ভালোবাসা পেয়ে আকাশে উড়ছেন! এবার উড়া বন্ধ করে ডানায় লাগাম দিন। নইলে পঙ্গু হাসপাতালে যেতে হবে।

Get together এ থাকা সম্পর্কগুলে মূলত এ ধরনের ভালোবাসার মধ্যে পড়ে যেখানে সম্পর্কের কোনো ভবিষ্যৎ থাকে না, শুধু আবেগ আর শারীরিক সম্পর্ক উপভোগ করা। আামদের দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে রোমান্টিক ভালোবাসার জোয়ারই বেশি। আর এর প্রভাবগুলো আমাকে না লিখলেও সবাই আমরা জানি, বুঝি এবং দেখি।

Compassionate love (সমবেদনা প্রেম): এ ধরনের ভালোবাসায় অন্তরঙ্গতা এবং প্রতিশ্রুতি থাকে থাকে কিন্তু কোনো আবেগ থাকে না। এখানে দু’জন ব্যক্তি দু’জনের সঙ্গ উপভোগ করে, সম্পর্কে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ কিন্তু সেখানে কোনো রোমান্টিক আবেগ থাকে না

Long term বৈবাহিক সম্পর্কের মধ্যে অনেক সময় এ ধরনের ভালোবাসা দেখা যায় যেখানে দু’জন দু’জনকে ভালোবেসে কাছে থাকার জন্য Passion এর দরকার হয় না। কারণ এখানে affection থাকেই সবসময়। পারিবারিক সম্পর্ক, এবং আদর্শমূলক ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কগুলো এ পর্যায়ে পড়ে।

Fatuous love (বোকার প্রেম): এখানে আবেগ আর প্রতিশ্রুতির ভরপুর থাকে কিন্তু কোনো অন্তরঙ্গতা থাকে না। বোকার মতো ভালোবাসা, অবাস্তব ভালোবাসাগুলো। বামন হয়ে চাঁদের দিকে হাত বাড়ানো টাইপ ভালোবাসাগুলোতে সীমাহীন আবেগ আর জান প্রাণ দিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি থাকে। স্পর্শ করার সুযোগ থাকে না। ‘বনমালি তুমি পর জনমে হইও রাধা’, ‘এ জীবনে না পেলেও দেখা হবে পরজনমে’ এই টাইপের প্রেমগুলো হলো বোকার প্রেম।

Consummate love (সুসম্পূর্ণ প্রেম): এতক্ষণে বুঝতে পারছেন যে পরিপূর্ণ প্রেমটা কী। Sternberg এর মতে ৩টা উপাদানের সমসত্ত্ব মিশ্রণ যে ঘটাতে পারবে বা যার সম্পর্কে Intimacy, passion and commitment থাকবে সেটাই হলো Complete love বা পরিপূর্ণ ভালোবাসা যেটা আমরা সবাই পেতে চাই। যেটা পেলে আমাদের জীবন ধন্য হয়ে যাবে। যে ভালোবাসা পেতে আমরা সাত সাগর ১৩ নদী পাড়ি দিয়ে সৈকতে বসে থাকতে রাজি প্রেয়সীর জন্য। যেখানে আমাদের অন্তরঙ্গতা হবে সুপারগ্লুর মতো, আবেগ থাকবে সুষম আর প্রতিশ্রুতি থাকবে ইস্পাতের মতো সুদৃঢ়।

এ ধরনের সম্পর্কই আমাদের সবার লক্ষ্য থাকে যেটাকে ideal love বলা হয়। Sternberg এর মতে, Consummate love would continue to be sexually intimate years into relationship এবং তারা কল্পনাও করতে পারবে না তাদের সম্পর্কটা কতটা সুখী অন্যান্য কাপলদের চেয়ে। তারা তাদের সমস্যাগুলি নিয়ে একসাথে কাজ করে এবং সম্পর্কের মধ্যে সফলতার আলো খুঁজে পায়।

Sternberg উল্লিখিত ৮ রকমের ভালোবাসার সাথে আপনি একমত? ভালোবাসার রকমগুলো অনেক সময় বিভিন্ন কৃষ্টি, কালচার, ব্যক্তিগত অনেকগুলো ফ্যাক্টরের উপর নির্ভর করতে পারে। আপনার ভালোবাসার ধরণ কোনটি। বিবেচনা করুন। নিজের ভালোবাসাকে পরিপূর্ণ করুন।

মো. আকবর হোসেন, চিকিৎসা মনোবিজ্ঞানী, নাইজেরিয়া/এমআরএম/পিআর

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]