সুবিধাবঞ্চিতদের পাশে আলোক কুঞ্জ

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:২৫ এএম, ০৯ জুন ২০১৯

সম্ভাবনায় ভরা আজকের তরুণরা। ইতিবাচক নানা ধরনের কাজের পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবার মানসিকতা নিয়ে নানা প্রান্তে তারা কাজ করে যাচ্ছে। তেমনি চার স্বপ্নবাজ তরুণ সোহেল রানা, হানিফ মিয়াজী, হোসাইন ইকবাল ও শেখ সুজন।

তারা চারজন মিলে নিজেদের প্রচেষ্টায় গড়ে তুলেছেন ‘আলোক কুঞ্জ’ নামক একটি অলাভজনক সমাজসেবামূলক প্রতিষ্ঠান। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের সমাজের মূল স্রোতে নিয়ে আসতে মৌলিক, নৈতিক, ধর্মীয় ও কারিগরি শিক্ষায় কাজ করছেন তারা। পাশাপাশি নারী উন্নয়নের লক্ষ্যে গ্রামের পিছিয়ে পড়া গরিব এতিম অসহায়দের সাহায্যে শুরু করছে ফেসবুকভিত্তিক তাদের এই সংগঠন।

southeast

সমাজের পিছিয়ে পড়া সুবিধাবঞ্চিত এতিম শিশুদের কীভাবে এগিয়ে নেয়া যায়, সেই ভাবনা থেকে ২০১৮ সালে স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদ থেকে চালু করেন তাদের স্বপ্নের সংগঠন আলোক কুঞ্জ।

রমজান মাসজুড়ে প্রবাসী, দেশী তরুণ সদস্য নিজস্ব প্রচেষ্টায় দুই শতাধিকের বেশি এতিম ও সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে ঈদের নতুন পোশাক, সেমাই, চিনি বিতরণ করেছে সংগঠনটি।

আলো ছড়ানোর প্রত্যয়ে- স্লোগানকে সামনে রেখে বিভিন্ন সময় নানা রকম মানবিক কাজ করে আসছে। সুন্দর ও সমৃদ্ধ করে তুলতে সকলকে নিয়ে কাজ করে যাওয়া গ্রুপের অন্যতম লক্ষ্য। তাই তারা ভার্চ্যুয়াল জগতে বন্দি না থেকে বাস্তবে অবিরাম কাজ করে যাচ্ছে।

অনলাইনভিত্তিক এ সংগঠনের এডমিন প্যানেল জানান, আমরা নিজেদের ব্যক্তিগত খ্যাতিতে বিশ্বাসী নই। সংগঠনটির মাধ্যমে দেশের অসহায়দের পাশে এসে দাঁড়াতে পেরেছি এটাই আমাদের স্বার্থকতা।

southeast

উল্লেখ্য, অনলাইনের মাধ্যমেই মূলত সদস্যদের কাছে এই বার্তা পৌঁছে দিচ্ছে সংগঠনটি। মহৎ হৃদয়ের সদস্যরা সংগঠনের বিভিন্ন মানবিক কাজের উদ্যোগে স্বেচ্ছায় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। গ্রুপের কাজগুলো সুসম্পন্ন করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে একদল স্বেচ্ছাসেবক।

আলোক কুঞ্জ তাদের কার্যক্রমকে সারাদেশে ছড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করছে। এর আওতায় প্রথমে দেশের বেশ কয়েকটি জেলার এতিম, গরিবদের পাশে দাঁড়িয়েছে তারা। আগামীতে এ কাজ আরও প্রসারিত করার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের।

কবির আল মাহমুদ, স্পেন থেকে/এমএসএইচ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :