প্রবাসীদের লাশ দেশে ফেরাতে কাজ করছে ‘এনআরবি’

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:৪৫ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০২০

পলাশ শীল, ওমান

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে প্রায় দেড় কোটি বাংলাদেশির বসবাস। এসব প্রবাসীরা জীবনের স্বাদ-আহ্লাদকে বিসর্জন দিয়ে দেশের লাল সবুজের পতাকাকে বিশ্বের দরবারে করেছে সম্মানিত। কষ্টার্জিত রেমিট্যান্স পাঠিয়ে পরবাসীরা বাংলাদেশের অর্থনীতিকে করছে সমৃদ্ধ।

যারা জীবনের সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করে মাতৃভূমিকে সম্মানিত করছে বিশ্ব দরবারে এবং দেশের উন্নয়নমূলক প্রতিটি কর্মকাণ্ডে নিঃস্বার্থভাবে নিজেদের সর্বোচ্চটা দিয়ে যাচ্ছেন সেসব যোদ্ধাদের সমস্যার যেন অন্ত নেই।

প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানের সরকার কিংবা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় প্রতিশ্রুতির বন্যা ভাসালেও কার্যত মিলছে না তাদের সমস্যার প্রতিকার। রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের জন্য মুক্তির দূত হয়ে এগিয়ে এসেছেন সিআইপি অ্যাসোসিয়েশন (এনআরবি) নামে ব্যবসায়ীদের একটি শীর্ষ সংগঠন।

এই অ্যাসোসিয়েশন বিশ্বব্যাপী প্রবাসীদের সমস্যার সমাধানের লক্ষ্যে সম্প্রতি বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করেছেন। তাছাড়া সমস্যা চিহ্নিত করে চিঠি প্রদানের মাধ্যমে তা কীভাবে সমাধান করা যায় সে ব্যাপারে উদ্যোগ গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কাছে।

বিশেষ করে আর্থিক সঙ্কটের কারণে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে হিমঘরে পড়ে থাকা প্রবাসী বাংলাদেশিদের পনেরটি মরদেহ দ্রুত দেশে পাঠানোর জন্য অ্যাসোসিয়েশন উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।

পনেরটি মরদেহের মধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের তেল সমৃদ্ধ দেশ ওমান থেকে দশটি, বাহরাইন থেকে দুইটি এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে তিনটি মরদেহ অচিরেই দেশে পাঠানো হবে বলে নিশ্চিত করেছেন সংগঠনটির নেতাকর্মীরা।

করোনাকালীন প্রবাসীদের আর্থিক সংকট ও অসহায়ত্বের কথা বিবেচনা করে অ্যাসোসিয়েশন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন সূত্র।

রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের মরদেহ যেন কোনো দেশের হিমঘরে পড়ে না থাকে সে ব্যাপারে পরিকল্পনা করে অগ্রসর হচ্ছেন বলে জানিয়েছেন (এনআরবি) সিআইপি অ্যাসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক সিআইপি ইয়াসিন চৌধুরী।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সাংগঠনিক সম্পাদক সিআইপি ইয়াছিন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশি রেমিট্যান্স যোদ্ধাদের মরদেহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের হিমাগারগুলোতে দিনের পর দিন পড়ে রয়েছে এমন খবর পত্রিকার পাতা খুললেই অহরহ চোখে পড়ে।

তিনি বলেন, একজন প্রবাসী রেমিট্যান্সযোদ্ধা হিসেবে বিষয়টি ভাবিয়ে তোলে। এদিকে বাংলাদেশ বিমানের বিনাখরচে মরদেহ বহনে অস্বীকৃতির বিষয়টিও প্রবাসীদের প্রতি কর্তৃপক্ষের অমানবিক সিদ্ধান্ত বলে মতো দেন তিনি।

প্রবাসীদের মরদেহগুলো বিনা খরচে দেশে পাঠানোর ব্যাপারে তার সংগঠন আন্তরিকভাবে কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ সরকার ওয়েজ আর্নার্স বন্ড কেনা প্রবাসী ব্যবসায়ীদের জন্য বন্ধ করেছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনায় শুধুমাত্র চাকরিজীবীদের জন্য এই বন্ড কেনার সুযোগ রাখা হয়েছে।

সে বিষয়টি নিয়ে (এনআরবি) সিআইপি অ্যাসোসিয়েশন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবিরের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করেন। এই বৈঠকে ফলপ্রসূ আলোচনার মাধ্যমে সবার জন্য বন্ড কেনার সুযোগ রাখার দাবি আদায় করে নেন অ্যাসোসিয়েশন।

বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে থাকা বাংলাদেশের প্রায় দেড় কোটি প্রবাসীর সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে সমাধানের পথ খুঁজে প্রবাসীদের পাশে থাকার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন (এনআরবি) সিআইপি অ্যাসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ইয়াছিন চৌধুরীসহ নেতাকর্মীরা।

এমআরএম/এমকেএইচ

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]