যে ব্যক্তিরা প্রিয়নবির সুপারিশ লাভে ধন্য হবেন

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০১ পিএম, ১৪ মার্চ ২০১৮

আল্লাহ তাআলার রহমত ব্যতিত কেউ পরকালে মুক্তি পাবে না। তবে মহান আল্লাহ প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সুপারিশে অনেক বান্দাকে নাজাত দান করবেন।

হাদিসে বর্ণিত আছে, যারা বেশি বেশি দরূদ শরিফ পাঠ করবে তাদের নাজাতের জন্য প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সুপারিশ করবেন।

অন্য হাদিসে এসেছে, যে ব্যক্তি আজানের উত্তর দেয়ার পর প্রিয়নবির প্রতি দরূদ শরিফ পাঠ করবে; প্রিয়নবি তাঁর জন্যও সুপারিশ করবেন।

পরকালে সুপারিশ লাভের উপায় প্রসঙ্গে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ৬টি ঘোষণা প্রদান করেছেন। হাদিসে এসেছে-

হজরত উবাদাহ ইবনে সামিত রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া বলেছেন, ‘তোমরা নিজেদের পক্ষ থেকে আমার জন্য ৬টি বিষয়ের দায়িত্ব গ্রহণ করো; আমিও তোমাদের জন্য জান্নাতের ব্যবস্থা করার দায়িত্ব গ্রহণ করবো।

সে ৬টি বিষয় হলো-

>> যখন তোমরা কথা বলবে, তখন সত্য বলবে;
>> যখন (কারো সঙ্গে) ওয়াদা করবে, অবশ্যই তা পূরণ করবে;
>> যখন (কারো) আমানত রাখবে, অবশ্যই তার খেয়ানত করবে না;
>> অবশ্যই তোমাদের লজ্জাস্থানের পবিত্রতা রক্ষা করবে;
>> তোমাদের দৃষ্টিকে অবনত রাখবে এবং
>> তোমাদের হাতকে সব ধরনের ক্ষতিকর কাজ থেকে বিরত রাখবে।’ (বায়হাকি)

পরিশেষে…
প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের প্রতি বেশি বেশি দরূদ পাঠের পাশাপাশি তাঁর ঘোষিত উল্লেখিত ৬টি কাজ যথাযথ গুরুত্বের সঙ্গে পালন করা জরুরি। যার ফলে পরকালে লাভ করবে সুপারিশ ও চিরস্থায়ী জান্নাত।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে হাদিসে ঘোষিত ৬টি কাজ যথাযথ পালন করার তাওফিক দান করুন। কুরআন-সুন্নাহর বিধি-বিধান যথাযথ পালন করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :