বাংলাদেশের মতো এবার শ্রীলঙ্কাতেও ঝামেলা পাকাচ্ছেন হাথুরু

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৩১ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

চন্ডিকা হাথুরুসিংহে, বাংলাদেশ দলের সফলতম কোচের একজন। সেটা অস্বীকার করার উপায় নেই। তার কাছে ম্যাজিক ফর্মুলা ছিল, যেটি দিয়ে কয়েকদিনের মধ্যেই টাইগারদের সাফল্যের শিখরে পৌঁছে দিয়েছিলেন। তবে এত সাফল্যের পরও হাথুরুর সমালোচকের অভাব ছিল না। তার স্বেচ্ছাচারিতায় অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিলেন দলের ক্রিকেটাররাও।

বাংলাদেশে থাকার সময় হাথুরুর বিরুদ্ধে একটা অভিযোগ ছিল, তিনি নিজের সিদ্ধান্ত জোর করে খেলোয়াড়দের উপর চাপিয়ে দেন। কখনও দলের ব্যর্থতার জন্য এককভাবে কাউকে দোষী করে বসেন। বাংলাদেশ দলের সিনিয়র খেলোয়াড়দের অনেকেই তাই অসন্তুষ্ট ছিলেন তার প্রতি।

এবার শ্রীলঙ্কাতে গিয়েও একইরকম ঝামেলা পাকাচ্ছেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ। এশিয়া কাপে দলের ব্যর্থতার পুরো দায় পড়েছে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজের উপর। যার ফলশ্রুতিতে নেতৃত্ব থেকেও সরিয়ে দেয়া হয়েছে তাকে। ম্যাথিউজকে কেন অব্যহতি দেয়া হয়েছে, সেই বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি লঙ্কান বোর্ড। শুধু জানানো হয়েছে নির্বাচকদের সিদ্ধান্ত এটা।

বাংলাদেশে থাকার সময় নির্বাচক কমিটির অন্যতম সদস্য ছিলেন কোচ হাথুরু। শ্রীলঙ্কাতেও তাকে এই ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। আর হাথুরুর স্বভাব এমন- তিনি বাকি নির্বাচকদের তেমন পাত্তা দেন না, তার কথাই শেষ কথা। শ্রীলঙ্কাতে গিয়েও এই কাজটিই করছেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ।

ঝামেলা তাই লেগে গিয়েছে সেখানেও। নেতৃত্ব হারানোর পর ম্যাথিউজ লঙ্কান বোর্ডকে যে চিঠি দিয়েছেন, তাতে বেরিয়ে এসেছে হাথুরুসিংহের প্রভাব খাঁটানোর তথ্য। ম্যাথিউজ মনে করছেন, তাকে 'বলির পাঁঠা' বানিয়েছেন এই হাথুরু আর নির্বাচকরা।

বিস্ফোরক চিঠিতে ম্যাথুস লিখেছেন, ‘গত ২১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার এসএলসিতে এক বৈঠকে নির্বাচকমণ্ডলী এবং জাতীয় দলের কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে উপস্থিত ছিলেন। তাঁরা আমাকে শ্রীলঙ্কার ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি অধিনায়কের পদ থেকে ইস্তফা দেয়ার কথা বলেন। তাৎক্ষণিকভাবে বিস্মিত হয়েছি এবং আমার মনে হয়েছে, এশিয়া কাপে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কা দলের খারাপ পারফরম্যান্সের পুরো দায় আমার উপর চাপিয়ে আমাকে বলির পাঁঠা বানানো হয়েছে। আমি দায় নিতে প্রস্তুত, তবে শুধু আমার ওপর দায় চাপালে সেটি বিশ্বাসঘাতকতা এবং আমাকে সরানোর চেষ্টা বলেই মনে হয়।’

সদ্য নেতৃত্ব হারানো লঙ্কান অধিনায়কের কথায় স্পষ্ট, তাকে সরিয়ে দেয়ার পেছনে কলকাঠি নেড়েছেন এই হাথুরু। কোচিং ব্যর্থতা আড়াল করতেই যেন সব দায় ম্যাথিউজের উপর চাপিয়ে বেঁচে যাওয়ার চেষ্টা তার।

এমএমআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :