বিকেএসপিকে হারিয়ে উত্তরাকেও বিদায় করল ব্রাদার্স

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৫:১৫ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৯

রেলিগেশন লিগের দুই ম্যাচে দুর্দান্ত খেললেও প্রথম পর্বের ম্যাচগুলোতে খুব একটা ভালো করতে পারেননি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের নবাগত দল উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব। আর সেটিই কাল হলো তাদের জন্য। রেলিগেশন লিগে দুই জয়ের পরেও ব্রাদার্সকে পেছনে ফেলে প্রিমিয়ারে টিকে থাকতে পারলো না উত্তরার দলটি।

আজ ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের প্রার্থনায় ছিলো বিকেএসপির জয়। কারণ দীর্ঘদিন পর লিগে ফেরা বিকেএসপি আজ ব্রাদার্সকে হারাতে পারলেই প্রিমিয়ারে টিকে যেত উত্তরা। উল্টোটা হলেই বিদায় নিশ্চিত তাদের, থেকে যাবে ব্রাদার্সই।

এখানে উল্লেখ্য, আগেই অবনমন নিশ্চিত হয়েছে বিকেএসপির। ফলে রেলিগেশন লিগের শেষ ম্যাচে তারা নীরব দর্শক হলেও ছিলো ব্রাদার্স ও উত্তরার আগ্রহের মধ্যেই। কিন্তু তারা পারেনি ব্রাদার্সকে হারাতে। ৬ উইকেটের সহজ জয়ে আগামী মৌসুমের প্রিমিয়ার লিগে নিজেদের অবস্থান নিশ্চিত করেছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

ম্যাচে আগে ব্যাট করে ২৩৫ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় বিকেএসপি। সামগ্রিক দৃষ্টিতে এটি মামুলী সংগ্রহ হলেও ফতুল্লার উইকেট বিবেচনায় লড়াকু পুঁজিই বলা চলে। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে ফজলে রাব্বি মাহমুদের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে লড়াই করতে পারেনি বিকেএসপি। চলতি লিগে নিজের তৃতীয় সেঞ্চুরি করে ব্রাদার্সকে সহজেই জয়ের বন্দরে নিয়ে গেছেন ফজলে রাব্বি।

fazle-mahmud

তবে রান তাড়ার শুরুটা অতো সহজ ছিলো না ব্রাদার্সের। মাত্র ২০ রানেই সাজঘরে ফিরে যান দুই ওপেনার জুনায়েদ সিদ্দিকী (৩ বলে ০) এবং মিজানুর রহমান (১১ বলে ৮)। তবে তৃতীয় উইকেট জুটিতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন শরীফুল ইসলাম এবং ফজলে রাব্বি।

কুমিল্লার ২৪ বছর বয়সী অভিষিক্ত শরীফুলকে সঙ্গে নিয়ে ১২৯ রানের জুটি গড়েন ফজলে রাব্বি। সেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগালেও ৯৭ বলে ৬৫ রান করে সাজঘরে ফিরে যান শরীফুল। তবে সেঞ্চুরি করতে কোনো ভুল করেননি ফজলে রাব্বি।

মাঝে ইয়াসির আলি রাব্বি ৩৬ বলে ১৬ রান করে ফিরে গেলেও মনোযোগে ব্যাঘাত ঘটেনি রাব্বির। বিকেএসপির বোলারদের ওপর আধিপত্য বিস্তার করেই নিজের লিস্ট 'এ' ক্যারিয়ারের ষষ্ঠ সেঞ্চুরিটি করেন বাঁহাতি এ টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান।

ইনিংসের ৪৮তম ওভারের দ্বিতীয় বলে ছক্কা মেরেই দলের জয় নিশ্চিত করেন ফজলে রাব্বি। শেষপর্যন্ত চলতি লিগে নিজের তৃতীয় সেঞ্চুরিতে ১১৭ বলে ১২৭ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। নিজের ইনিংসটিকে ৭ চারের সঙ্গে ৫ ছয়ের মারে সাজান ৩১ বছর বয়সী এ অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান।

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি বিকেএসপির। তবে আমিনুল ইসলামের ১০৫ বলে ৯০ এবং অধিনায়ক আকবর আলির ৬২ বলে ৫৬ রানের ইনিংসের সুবাদে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৩৫ রানের সংগ্রহ পায় তারা। যা পরে জয়ের জন্য আর যথেষ্ঠ মনে হয়নি।

রেলিগেশন লিগের সব ম্যাচ শেষে প্রথম পর্বের ১১ ম্যাচসহ ১৩ ম্যাচে সমান ৮ পয়েন্ট রয়েছে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাব ও ব্রাদার্স ইউনিয়নের ঝুলিতে। দুই দলের হেড টু হেডেও রয়েছে ১টি করে জয়। তবে নেট রানরেটে পিছিয়ে থাকায় কপাল পুড়েছে উত্তরার, অবনমিত হয়ে গেছে প্রথম বিভাগ ক্রিকেটে।

এসএএস/পিআর