ছোট দলের বড় তারকা রশিদ খান

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৫৯ পিএম, ১৯ মে ২০১৯

আফগানিস্তানের রশিদ খান, নাকি রশিদ খানের আফগানিস্তান। অবস্থা এমন দাঁড়িয়েছে যে অনেকে রশিদ খানকে দিয়েই আফগানিস্তানের ক্রিকেটকে চেনেন। বিশ্ব ক্রিকেটে আফগানদের উত্থানের পেছনে এই একজনের অবদান আলাদা করেই লিখতে হবে।

ছোট দলের বড় তারকা বলা হয় তাকে। শুধু বড় তারকা বললে ভুল হবে, বিশ্ব ক্রিকেটে এখন সেরা বোলারদের তালিকা করলে রশিদ খানকে রাখতেই হবে ওপরের দিকে। লেগস্পিনারদের মধ্যে তো রশিদ এখন তর্কসাপেক্ষে এক নম্বর।

২০১৫ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক রশিদ খানের। তখন তার বয়স মাত্র ১৬। কিশোর রশিদ সেই যে আন্তর্জাতিক আঙিনায় ঢুকলেন, এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

আফগানিস্তানের হয়ে এখন পর্যন্ত ৫৭টি ওয়ানডে খেলেছেন রশিদ খান। উইকেট নিয়েছেন দ্বিগুণের বেশি (১২৩টি)। এর মধ্যে ৫ উইকেটই ৪ বার, সমান ৪ বার ৪ উইকেট শিকার।

ছোট ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ৭ উইকেট নেয়ারও রেকর্ড আছে রশিদের। সেটাও আবার আইসিসির সহযোগী কোনো দেশের বিপক্ষে নয়। ২০১৭ সালে গ্রস আইলেটে টেস্ট খেলুড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাত্র ১৮ রান খরচায় ৭টি উইকেট নেন রশিদ। সেই ম্যাচটিতে আফগানিস্তানও জিতেছিল ৬৩ রানের বড় ব্যবধানে।

বোঝাই যাচ্ছে, রশিদ যেদিন জ্বলে উঠেন, সেদিন কোনো প্রতিপক্ষই আফগানিস্তানের জন্য বড় নয়। দেশের হয়ে বড় তারকাদের বিপক্ষে খুব একটা খেলার সুযোগ না হলেও আইপিএলে মাঠ মাতানো রশিদ ঠিকই সেই অভিজ্ঞতাটা অর্জন করে নিয়েছেন। তার নিজের দিনে বিশ্বের যে কোনো প্রতিষ্ঠিত শক্তিকে হারিয়ে দিতে পারে আফগানিস্তান এবং রশিদ খান।

আইপিএলে বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানদের ঘাম ঝরিয়ে এখন সমীহ জাগানো এক নাম রশিদ খান। ওয়ানডে বোলার র্যাংকিংয়ে তিন নাম্বারে থাকা এই লেগস্পিনার যদি বিশ্বকাপে সেরাটা দিতে পারেন, তবে প্রতিপক্ষের জন্য বড় দুশ্চিন্তার কারণ হতে পারে আফগানিস্তানও।

এমএমআর/আইএইচএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :