২৩ সেপ্টেম্বর একসঙ্গে শ্রীলঙ্কা যাবে এইচপি ও জাতীয় দল

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৩:১৮ পিএম, ১২ আগস্ট ২০২০

মূল সিরিজ শুরুর এখনও বাকি প্রায় আড়াই মাসের মতো। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে দুই দেশের মধ্যকার টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তিন ম্যাচের সিরিজটি শুরু হবে আগামী ২৪ অক্টোবর থেকে। কিন্তু করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে প্রায় আড়াই মাস আগে থেকেই শুরু হয়েছে সে সিরিজের তোরজোড়।

এতদিন চূড়ান্ত ছিল না ঠিক কবে শ্রীলঙ্কা সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। গুঞ্জন ছিল ২৩ অথবা ২৪ সেপ্টেম্বর দেশ ছাড়বে টাইগাররা। অবশেষে আজ (বুধবার) বিসিবির ক্রিকেট অপারেশনস কমিটি ও হাই পারফরম্যান্স ইউনিটের এক অনানুষ্ঠানিক সভায় নিশ্চিত হলো, আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কায় যাচ্ছেন মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা।

শুধু জাতীয় দল নয়, একই দিন বিসিবির হাইপারফরম্যান্স ইউনিটও (এইচপি ইউনিট) যাবে শ্রীলঙ্কায়। সেজন্য ঘোষণা করা হবে ২৪ সদস্যের এইচপি স্কোয়াড। শ্রীলঙ্কান এইচপি ইউনিটের সঙ্গে সিরিজ রয়েছে তাদের। তার আগে জাতীয় দলের অনুশীলনে সহায়তা করাই হবে এইচপির খেলোয়াড়দের মূল কাজ।

এ কারণে শুরুর প্রায় আড়াই-তিন সপ্তাহ এইচপি দলের সব খরচ বহন করতে হবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডকেই। পরে এইচপির সিরিজ শুরুর নির্ধারিত সময় ঘনিয়ে আসলে তাদের সব খরচ চলে যাবে লঙ্কান বোর্ডের অধীনে।

আজ দুপুর সাড়ে ১২টায় শুরু হওয়া বৈঠকটি শেষ হয় আড়াইটার পরে। অনানুষ্ঠানিক সভায় বিসিবি সিইও নিজামউদ্দীন চৌধুরী সুজন, দুই পরিচালক আকরাম খান ও (ক্রিকেট অপারেশনস কমিটির চেয়ারম্যান) নাইমুর রহমান দুর্জয় (হাই পারফরমেন্স ইউনিট চেয়ারম্যান) এবং দুই নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু ও হাবিবুল বাশার সুমন অংশ নেন।

প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী আলোচনা শেষে জাগো নিউজকে শ্রীলঙ্কা সফরের নির্ধারিত তারিখ জানিয়েছেন এইচপি ইউনিটের চেয়ারম্যান নাইমুর রহমান দুর্জয়। তিনি জানান, জাতীয় দলের সিরিজ শেষ হওয়ার পর একসঙ্গেই ফিরবে এইচপি ইউনিট ও জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা।

নাইমুর রহমান দুর্জয় জাগো নিউজকে বলেন, ‘এইচপির ২৪ জনের স্কোয়াড যাবে শ্রীলঙ্কা এবং জাতীয় দলের সাথে একসঙ্গে ২৩ সেপ্টেম্বর শ্রীলঙ্কা যাবে এইচপির তরুণরা, ফিরবেও একসঙ্গে। এইচপির থাকা ও খাওয়ার প্রথম অংশটা বিসিবির খরচ। তারপর জাতীয় দল যখন সিরিজে চলে যাবে, তখন এইচপি দলের সঙ্গে লঙ্কান বোর্ডের যে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আছে সেটা হবে এবং আতিথেয়তার সমুদয় খরচ লঙ্কান বোর্ড বহন করবে।’

এআরবি/এসএএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]