ওয়ানডেতে আমরা দুর্দান্ত, সিরিজ জিততে পারব : সুজন

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৫৩ পিএম, ০৯ মে ২০২১
ছবি : সংগৃহীত

ওয়ানডে বিশ্বকাপ সুপার লিগের শুরুটা দুর্দান্ত করেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় সারির ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে হোয়াইটওয়াশ করে পূর্ণ ৩০ পয়েন্ট পেয়েছিল তামিম ইকবালের দল। কিন্তু নিউজিল্যান্ডে গিয়ে আবার হারতে হয়েছে তিন ম্যাচের সবকয়টি। ফলে এখন নেমে গেছে পয়েন্ট টেবিলের ৬ নম্বরে।

এবার ঘরের মাঠে আরেকটি ওয়ানডে সিরিজ। শ্রীলঙ্কার মাটিতে টেস্ট সিরিজ হেরে আসার পর, এখন ঘরের মাঠে ওয়ানডেতে লঙ্কানদের স্বাগত জানাবে বাংলাদেশ। ফরম্যাট বদলে যাওয়ায় নিজেদেরকেই ফেবারিট মানছেন শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশের টিম লিডার হিসেবে থাকা খালেদ মাহমুদ সুজন।

শোনা যাচ্ছে, নিয়মিত খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়ে তরুণ ও সম্ভাবনাময় ক্রিকেটারদের নিয়ে বাংলাদেশে আসবে শ্রীলঙ্কা। তবে নবীন দল এলেও, সেটি যে বেশ শক্ত দল হবে, তা নিয়ে সন্দেহ নেই সুজনের। তাই সতর্ক থাকার বিকল্প দেখছেন না তিনি। যদিও ওয়ানডে ফরম্যাট হওয়ায় সিরিজ জেতার বিশ্বাস রয়েছে তার।

রোববার মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সুজন বলেছেন, ‘নবীন হলেও শ্রীলঙ্কা বেশ শক্ত দল হবে। অবশ্যই আমরা ঘরের মাঠে সিরিজ জিততে চাই। আমি বিশ্বাস করি যে, আমাদের সামর্থ্য আছে সিরিজ জেতার। যদিও বেশ কিছু ম্যাচ হেরে আমরা ব্যাকফুটে আছি।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘তবে আমি মনে করি এই ফরম্যাটে আমরা বেশ দুর্দান্ত দল। আমি মনে করি আমাদের কন্ডিশন, যদিও শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের কন্ডিশনে খুব বেশি ফারাক নেই তবুও আমাদের হোমগ্রাউন্ড... আমরা চেষ্টা করব নিজেদের সেরা ক্রিকেটটা খেলতে। আমি বিশ্বাস করি সিরিজটা আমরা জিতব।’

শ্রীলঙ্কা থেকে ফেরার পর আজই প্রথমবারের মতো অনুশীলনের সুযোগ পেয়েছেন টেস্ট দলে থাকা খেলোয়াড়রা। হোম অব ক্রিকেটে ঘাম ঝরিয়েছেন তাসকিন আহমেদ, মুশফিকুর রহীমরা। ঈদের পর আবার ১৮ মে থেকে শুরু হবে অনুশীলন। তখন পুরো স্কোয়াড নিয়েই অনুশীলন করতে পারবে বাংলাদেশ।

উল্লেখ্য, আগামী ১৬ মে দেশে আসবে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। পরে তিনদিনের কোয়ারেন্টাইন পর্ব শেষ করে ১৯ মে থেকে অনুশীলন শুরু করবে তারা। আগামী ২৩ মে থেকে শুরু হবে মূল সিরিজের খেলা। পরের দুই ম্যাচ ২৫ ও ২৮ মে। এর আগে ২১ মে বিকেএসপিতে একটি অনুশীলন ম্যাচ খেলবে তারা।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের প্রাথমিক স্কোয়াড
তামিম ইকবাল, নাঈম শেখ, ইমরুল কায়েস, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, নাজমুল হোসেন শান্ত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, শেখ মেহেদী হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, মোস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম।

এসএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]