ইচ্ছা থাকে ভালো করার, হচ্ছে না দুর্ভাগ্য: নাসুম

ক্রীড়া প্রতিবেদক ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৯:২৪ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০২১

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আশা জাগিয়েও মিলেছিল হতাশার হার। ভক্ত-সমর্থকদের আশা ছিল ইংল্যান্ডের ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ দল। আশায় গুঁড়েবালি। জয় দূরের কথা, লড়াইটাও করতে পারেনি টাইগাররা। বড় পরাজয়ে ধূসর হয়ে গেলো সেমিফাইনালে ওঠার স্বপ্ন।

বুধবার দিনের প্রথম ম্যাচে টস জিতে আগে ব্যাট করে মাত্র ১২৪ রানে থেমে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। জবাবে দুই উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৪.১ ওভারেই ম্যাচ জিতে নিয়েছে ইংলিশরা। পরপর দুই ম্যাচ হেরে নেট রানরেটের অবস্থাও হয়ে গিয়েছে বেশ বাজে।

এমন হারের পর সংবাদ সম্মেলনে আসা বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদ জানিয়েছেন, মূলত দুর্ভাগ্যের কারণে তাদের প্রত্যাশামতো হচ্ছে না সবকিছু। ম্যাচটিতে ৯ বলে ১৯ রান করার পাশাপাশি একটি উইকেটও নিয়েছেন নাসুম। কিন্তু তার পারফরম্যানস পুরোটাই গিয়েছে বিফলে।

ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়ে গেলেও বিশ্ব আসরে সেই আত্মবিশ্বাস কাজে লাগছে না একদমই। তবে নাসুম হাল ছাড়ছেন না। তার বিশ্বাস, এখনও বাকি থাকা তিন ম্যাচে আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার সুযোগ রয়েছে বাংলাদেশ দলের সামনে।

তিনি বলেছেন, ‘আমাদের আরও তিনটা ম্যাচ আছে। এখান থেকে একটা ক্লিক করতে পারলে বাকি দুইটাও ক্লিক করতে পারবো। আর একটা জিতলে পরের ম্যাচের জন্য আত্মবিশ্বাসী হয়ে যাবো। কারণ বাংলাদেশে যে ম্যাচ জিতেছিলাম আত্মবিশ্বাস উঁচুতে ছিলো। ওমানে প্রথম ম্যাচ হারলেও বাকি দুইটা জিতে সুপার টুয়েলভে এসেছি। আমাদের ইচ্ছা থাকে ভাল কিছু করার, হচ্ছে না এটা আমাদের ব্যাড লাক।’

ব্যাটিংয়ে তেমন ভালো করতে পারছে না বাংলাদেশ। এ বিষয়ে তার ভাষ্য, ‘এটা নিয়ে আমাদের মধ্যে কথা হয়। প্রথম ছয় ওভারে রান তুলতে পারছি না। এজন্য আমরা পিছিয়ে পড়ছি। রানও তুলতে পারছি না। উইকেটও পড়ছে। এটা নিয়ে সবাই আলোচনা করছি। সবারই ভালো কিছু করার চেষ্টা আছে। কিন্তু হচ্ছে না।’

সংবাদ সম্মেলনে আসে প্রচণ্ড গরমের মধ্যে টানা খেলার ক্লান্তির ব্যাপারেও। এ সম্পর্কে নাসুম বলেন, ‘ক্লান্তি বলতে একদিন পরপর খেলা, তেমন একটা ধকল যাচ্ছে না। জিততে পারছি না এইজন্য একটু অন্যরকম লাগছে।’

এসএএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]