বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে থাকছে বাংলাদেশের পতাকাও

রফিকুল ইসলাম
রফিকুল ইসলাম রফিকুল ইসলাম , বিশেষ সংবাদদাতা মস্কো, রাশিয়া থেকে
প্রকাশিত: ০৮:২৮ পিএম, ১৪ জুন ২০১৮

টিকটিক করে ঘুরছে ঘড়ির কাঁটা। এগিয়ে আসছে বিশ্বকাপের কিক অফের সময়। বাকি আর এক ঘন্টারও কম সময়। রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় বাজবে বিশ্বকাপের বাঁশি। প্রায় ৮০ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতা সম্পন্ন এ ভেন্যুটি দর্শকে ভরে উঠছে কানায় কানায়।

rafikগ্যালারি এখন পুরোটাই লাল। রাশিয়ান সমর্থকদের লাল সমুদ্রে লাল-সবুজও থাকছে। মস্কোতে বসবাসকারী বাংলাদেশি পারভেজ খসরু লাল-সবুজ পতাকা হাতে এখন লুঝনিকি স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে। গ্যালারিতে প্রবেশের আগে তিনি স্টেডিয়ামের সামনে রাশিয়ান সমর্থকদের সঙ্গে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা দুলিয়ে, গায়ে জড়িয়ে।

পারভেজ খসরু মাঠে প্রবেশের সময় জাগো নিউজকে জানিয়েছেন, মস্কোয় ৫০০ জনের মতো বাংলাদেশি আছেন। তবে রাশিয়া ও সৌদি আরবের মধ্যেকার উদ্বোধনী ম্যাচের টিকিট পাননি মস্কো প্রবাসী বেশিরভাগ বাংলাদেশি। ‘আমার জানামতে এখানে বসবাসকারী আর কোনো বাংলাদেশি উদ্বোধনী ম্যাচের টিকিট পাননি।’

ঢাকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স পাস করে মস্কোতে বিবিএ করে এখন ব্যাবসা করছেন। নোয়াখালীর জাভেদ খসরুর ব্যবসা, শিশুদের শীতের পোষাক। তার এ পোষাকের একটি কারখানাও আছে মস্কোতে।

দুই ছেলের জনক জাভেদ। বড় ছেলে ইংলিশ মিডিয়ামে পড়ে চতুর্থ শ্রেনীতে, ছোটটার বয়স ৪ বছর। উদ্বোধনী ম্যাচের টিকিট তিনি কিনেছেন ৫০০ মার্কিন ডলার দিয়ে। ফিফার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে যা ১০০ ডলার বেশি। ২৮ জুন পরিবারসহ যাবেন পানামা-তিউনিশয়া ম্যাচ দেখতে সারানক্সে।

আরআই/আইএইচএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :