চলে গেলেন ব্রাজিলকে হলুদ জার্সি এনে দেয়া মানুষটি

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৭:২৫ পিএম, ১৭ নভেম্বর ২০১৮

সামনের বৃহস্পতিবার তার ৮৪ বছরে পা দেয়ার কথা ছিল। এমন সময়ে চলে গেলেন ব্রাজিলের বিখ্যাত হলুদ জার্সি আর নীল শর্টের ডিজাইনার অ্যালদির গার্সিয়া শ্লি।

ব্রাজিলের বিখ্যাত জার্সির ডিজাইনার শ্লি পেশায় একজন সাংবাদিক ছিলেন। বৃহস্পতিবার তার পরিবারের পক্ষ থেকেই মৃত্যুর খবরটি জানানো হয়েছে। দীর্ঘ ছয় বছর ত্বকের ক্যান্সারে ভুগছিলেন তিনি।

শুক্রবার লন্ডনে ব্রাজিল আর উরুগুয়ের মধ্যকার প্রীতি ম্যাচের আগে শ্লির সম্মানে নীরবতা পালন করা হয়। এদিনই সাউদার্ন ব্রাজিলে সমাহিত করা হয়েছে বিখ্যাত এই মানুষটিকে।

১৯৫৩ সালে সংবাদপত্র 'করিও ডা মানহা'র আয়োজনে একটি প্রতিযোগিতার জন্য হলুদ জার্সি আর নীল শর্ট বানিয়েছিলেন শ্লি। ওই প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হন তিনি, জিতেছিলেন তখনকার সময়েই ৫ হাজার ডলার প্রাইজমানি।

BARZIL-2

ব্রাজিলের আগের জার্সি ছিল সাদা শার্ট আর নীল শর্ট। ১৯৫০ সালে বিশ্বকাপের ফাইনালে উরুগুয়ের কাছে যন্ত্রণাদায়ক হারের পরই নতুন রঙের জার্সির কথা ভাবা হয়। যার জন্য আয়োজন হয় ওই প্রতিযোগিতা।

শ্লির ডিজাইন করা জার্সি পড়ে সুইজারল্যান্ডে ১৯৫৪ বিশ্বকাপে খেলে ব্রাজিল। যে টুর্নামেন্টে কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত পৌঁছতে পেরেছিল সেলেসাওরা।

এরপরই আসে আসল সাফল্য। ১৯৫৮ সকালে পেলে-গারিঞ্চার ব্রাজিল সুইডেন থেকে শিরোপা নিয়ে তবেই দেশে ফেরে। তবে ওই বিশ্বকাপের ফাইনালে হলুদ জার্সি পড়ে নামা হয়নি ব্রাজিলের। ফাইনালের প্রতিপক্ষ সুইডেনের জার্সি হলুদ হওয়ায় সেবার নীল-সাদা জার্সি পড়ে নেমেছিল ব্রাজিল।

তবে হলুদ-নীল জার্সি ব্রাজিলের সৌভাগ্য বয়ে এনেছে পরের সময়টায়। ১৯৬২, ১৯৭০, ১৯৯৪ আর ২০০২ সালের বিশ্বকাপজয়ী দলের গায়ে ছিল এই রঙেরই জার্সি।

মজার ব্যাপার হলো, ১৯৫৩ সালের ওই প্রতিযোগিতায় শুধু হলুদ-নীল জার্সিই নিয়ে যাননি শ্লি। তিনি আরও তৈরি করেছিলেন সবুজ শার্ট আর সাদা শর্টের জার্সি, ছিল হলুদ শার্টে নীল-সবুজ স্ট্রাইপের জার্সিও। শেষ পর্যন্ত হলুদটিই জেতে পুরস্কার।

এমএমআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :