রোনালদোর গোলে সুপার কোপা জিতলো জুভেন্টাস

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:৫২ এএম, ১৭ জানুয়ারি ২০১৯

ক্লাব পাল্টিয়েছেন কিন্তু স্বভাবটা একদমই পাল্টাননি পাঁঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। রিয়াল মাদ্রিদের বিভিন্ন প্রতিযোগিতার ফাইনালে গোল করাটা তার কাছে স্বাভাবিক ব্যাপার ছিল। সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখলেন নতুন ক্লাব জুভেন্টাসের হয়েও। তার করা একমাত্র গোলেই ইতালিয়ান সুপার কোপার ফাইনালে এসি মিলানকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়েছে জুভেন্টাস। রোনালদো পেলেন নতুন ক্লাবের হয়ে প্রথম ট্রফি জয়ের স্বাদ।

সৌদি আরবের মাটিতে হওয়া এই ফাইনাল নিয়ে ইতালিতে যখন সমালোচনার ঝড় বইছিল ঠিক তখন মাঠের খেলাতেই মনোনিবেশ করতে দেখা গেছে দুদলকে। কেউ কাউকে একটুও ছাড় দিতে নারাজ ছিল।

ম্যাচের শুরুতেই ডগলাস কস্তার শট গোলবারের সামান্য বাইরে দিয়ে চলে যায়। ১৮ মিনিটে আবারও সেই ডগলাস কস্তার বাড়ানো বল থেকে ১৫ গজ দূর থেকে ক্যান্সেলোর শট গোলবার ঘেঁষে বাইরে চলে যায়।

 

r

৩৫ মিনিটে মাতুইদি গোল করলেও অফসাইডের কারণে সেটি বাতিল হয়ে যায়। ৪৩ মিনিটে ম্যাচে প্রথমবার গোলের সুযোগ পান রোনালদো। কিন্তু তার হেড গোলবারের উপর দিয়ে চলে যায়। গোলের সুযোগ পেয়েছিল এসি মিলানও। প্রথমার্ধের শেষ মিনিটে চালহাঙ্গলুর ২০ গজ দূর থেকে নেয়া শট রুখে দেন সিজনি।

গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধে দুই দলই গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে। ৪৯ মিনিটে কুত্রোনের শট গোলবারে লেগে বাইরে চলে গেলে গোল বঞ্চিত হয় জুভেন্টাস। অবশেষে ৬২ মিনিটে মিলান রক্ষণভাগে হানা দেন রোনালদো। মাঝমাঠ থেকে পিয়ানিচের বাড়ানো ক্রসে হেড থেকে দারুণ গোল করে জুভদের এগিয়ে দেন এই পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড।

৭৪ মিনিটে এসি মিলানের জন্য আরও দুঃসংবাদ হয়ে আসে কেসির লাল কার্ড পাওয়া। ১০ জনের দল নিয়ে বাকি সময়টুকু লড়াই করেও গোল আদায় করে নিতে পারেনি মিলান। ফলে রোনালদোর করা একমাত্র গোলে রেকর্ড অষ্টমবারের মতো ইতালিয়ান সুপার কোপা জিতলো জুভেন্টাস। এই ট্রফি জয়ের সুবাদে চারটি ভিন্ন লিগে খেলে চারটি লিগেরই সুপার কোপা জিতলেন রোনালদো।

আরআর/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :