দুই কিংবদন্তিকে জয় উপহার দিতে চায় পাকিস্তান


প্রকাশিত: ০৪:২৪ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৭
দুই কিংবদন্তিকে জয় উপহার দিতে চায় পাকিস্তান

মিসবাহ-উল-হক ও ইউনিস খান; পাকিস্তানের দুই ব্যাটিং স্তম্ভের নাম। বেশ কয়েকটি বছর ধরে জাতীয় দলের হয়ে আস্থার প্রতিদান দিয়ে আসছেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটটা আবার ছাড়ছেন একসঙ্গে। জাতীয় দলের জার্সি তুলে রাখার ঘোষণাটা দুজনই দিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ শুরু হওয়ার আগে।

ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের এই সিরিজটাই পাকিস্তানের হয়ে মিসবাহ-ইউনিসের শেষ সিরিজ। এরপর আর পাকিস্তান জাতীয় দলের জার্সিতে দেখা যাবে না মিসবাহ-ইউনিসকে। বিদায়টা নিশ্চয়ই রাঙাতে চাইবেন তারা।

এবার শেষ টেস্ট সিরিজের শুরুর অপেক্ষায় মিসবাহ-ইউনিস। আর সেই শুরুটা আজই। কিংস্টনের সাবিনা পার্কে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান। ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে টেন ৩।

এদিকে, দুই কিংবদন্তিকে জয় উপহার দিতে চায় পাকিস্তান। আজহার আলি, সরফরাজ আহমেদ, মোহাম্মদ আমির, বাবর আজমরা প্রস্তুত! পাকিস্তানের জয়ের সম্ভাবনা দেখছেন পাকিস্তানের সাবেক প্রধান নির্বাচক সালাউদ্দিন আহমেদ সাল্লু।

সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচ নিয়ে সাল্লু বলেন, ‘কিংস্টনে পাকিস্তানের জয়ের ভালো সুযোগ আছে। আমাদের ব্যাটিং ও বোলিং লাইন-আপ অনেক ভালো।’

অতীত পরিসংখ্যান অবশ্য এগিয়ে রাখছে ওয়েস্ট ইন্ডিজকেই। ক্যারিবিয়ানদের মাঠে এখনও কোনো সিরিজ জিততে পারেনি পাকিস্তান। সেখানে ২৩টি টেস্ট খেলে জয় পেয়েছে ৫টিতে। তবে সব লড়াই মিলে এগিয়ে পাকিস্তান। ৪৯ টেস্টের ১৮টিতে জয় পেয়েছে পাকিস্তান; আর ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয় ১৬টিতে।

প্রসঙ্গত, টেস্টের মূল লড়াই শুরুর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রেসিডেন্ট একাদশের বিপক্ষে নিজেদের ঝালিয়ে নেয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন মিসবাহরা। ওই ম্যাচে ঢিলেঢালা প্রস্তুতিই হলো সফরকারীদের। পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের একবার ব্যাট করার সুযোগ হয়েছে।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম ইনিংসে করা ৪১৯ রানের জবাবে ১৯২ রানে অলআউট মিসবাহর দল। পাকিস্তানের বোলাররা সুবিধা করতে পারেননি দ্বিতীয় ইনিংসেও। এ যাত্রায় ক্যারিবিয়রা ২ উইকেটে করে ১৫২ রান। তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচটা হয়েছে ড্র। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট বারবাডোজে; শুরু ৩০ এপ্রিল। আর মিসবাহ-ইউনিসের বিদায়ী ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ডমিনিকায়, ১০ মে।

এনইউ/পিআর