ফ্রিল্যান্সিংয়ের কোর্সে এস আর ড্রিম আইটিতে বিশেষ সুযোগ

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:১০ পিএম, ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

বর্তমান সময়ে ফ্রিল্যান্সিং করে ঘরে বসে আয় করা যায় এই কথা শোনেনি এমন কাউকে হয়ত খুঁজেও পাওয়া যাবে না। করোনা মহামারীর এই সময়ে সবকিছু থমকে থাকলেও থেমে থাকেনি ফ্রিল্যান্সিং ইনকামের চাকা, বরং এর পরিমাণ বেড়েছে। ডিজিটাল মার্কেটিং ফ্রিল্যান্সিং এর অন্যতম জনপ্রিয় একটি সেক্টর।

গেল এক বছরেরও বেশি সময় ধরে ফ্রিল্যান্সিং-এর উপর বিশেষ কোর্সে ট্রেনিংয়ের বিশেষ সুযোগ দিচ্ছে ‘এস আর ড্রিম আইটি’। এই সময়ের মধ্যে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ট্রেইনিরা এরইমধ্যে লক্ষাধিক ডলারেরও বেশি আয় করেছেন, যা খুবই বিরল।

প্রতিষ্ঠানটি তাদের ট্রেইনিদের ফ্রিল্যান্সিং করে আয় করার জন্যে শুধুমাত্র ডিজিটাল মার্কেটিং এর ট্রেইনিং দিয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে।

ট্রেইনিদের জন্য প্রতিদিন ৭ ঘন্টা করে অনলাইন লাইভ সাপোর্টের ব্যবস্থা এবং সারাজীবনের জন্য এটি একদম ফ্রি! অর্থাৎ একজন ট্রেইনি তার প্রশিক্ষণ শেষেও লাইভ সাপোর্ট থেকে সহযোগিতা নিতে পারে। প্রতিষ্ঠানটি তাদের ট্রেইনিদের দিয়েছে ফ্রি গ্রাফিক্স ডিজাইন কোর্সের সুযোগ। যার মাধ্যমে যে কেউ মার্কেটপ্লেসে কাজ করার জন্য খুব সহজেই নিজেকে প্রস্তুত করতে পারে।

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক শুভ আহমেদ জানান, আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং ফ্রিল্যান্সিং এর নতুন একটি ব্যাচ যেখানে ৩ জন শিক্ষার্থী পাবেন ১০০% স্কলারশিপ। আর সে সুযোগটি করে দিচ্ছে ‘এস আর ড্রিম আইটি’।

শুভ আহমেদ লিড ট্রেইনার হিসেবে শুরু থেকে একাই দুই হাজারেরও এর বেশি স্টুডেন্ট-কে ট্রেইনিং করিয়েছেন। শুধু যে তিনি-ই ট্রেইনার হিসেবে আছেন এমন নয়, তিনি নিজেও ডিজিটাল মার্কেটার হিসেবে পঞ্চাশ হাজার ডলারেরও বেশি আয় করেছেন। পাশাপাশি ট্রেইনিং করিয়েছেন বাংলাদেশ সরকারের লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টে।

jagonews24

তিনি এলইডিপি এর যেসকল স্টুডেন্ট-কে ট্রেইনিং করিয়েছেন তাদের সবাইকে ‘এস আর ড্রিম আইটি’-তে ফ্রি অনলাইন হেল্পের ব্যবস্থা করিয়ে অনন্য নজির স্থাপন করেছেন।

এই বিষয়ে কথা বলতে চাইলে শুভ আহমেদ বলেন, ‘আমার স্বপ্ন ছিল এমন একটি প্লাটফর্ম তৈরি করার, যেখানে সবাই সবথেকে কম মূল্যে সবথেকে বেশি স্কিল ডেভেলপ করে নিজেকে একজন প্রফেশনাল ফ্রিল্যান্সার দাবি করতে পারবে। আর সেই লক্ষ্যেই আমরা শুরু থেকে অটল ছিলাম। যার কারণে আজ ‘এস আর ড্রিম আইটি’ শতভাগ পজিটিভ রিভিউপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান। আমার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা হচ্ছে বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মকে স্কিলড প্রজন্ম বানানো যেন কাউকে বেকার বসে থাকতে না হয়।’

তিনি আরও বলেন ,‘আমরা একটি ডিজিটাল ড্যাশবোর্ড দিয়ে থাকি যেখানে লাইভ ক্লাসের রেকর্ডেড ভিডিও, ট্রেইনারের সাথে কনসালটেশন, লাইভ চ্যাটিং করার সুবিধা থাকে।’

‘এস আর ড্রিম আইটি’র ট্রেইনিদের বিশেষ সুবিধার মধ্যে রয়েছে- ৩০ দিনের ইন্টার্নশিপ, ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেস ফাইবার এবং আপওয়ার্ক এর গাইডলাইন, কোর্স শেষে ২টি সার্টিফিকেট, মাসের ৩০ দিন প্রতিদিন ৭ ঘন্টা লাইভ সাপোর্ট (ভর্তির পরের দিন থেকেই যে কেউ চাইলে সাপোর্ট নিতে পারবে)।

‘এস আর ড্রিম আইটি’ এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট

এলএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]