কম্পিউটারের গতি বাড়াবেন যেভাবে

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৪৩ পিএম, ০৯ অক্টোবর ২০২১

ব্যক্তিগত কিংবা অফিসিয়াল কম্পিউটার একটু পুরোনো হলেই এর গতি কমে যায়। অ্যাডোবি ফটোশপ বা ভিডিও এডিটিংয়ের মতো ভারি সফটওয়্যার থাকলে কম্পিউটার দ্রুত স্লো হয়ে যায়। ফোনের মতো ঘন ঘন কম্পিউটার নতুন ক্রয় করা বা পাল্টানো যায় না।

তাই পুরোনো কম্পিউটারের গতি বৃদ্ধির জন্য কিছু কৌশল অবলম্বন করতে হয়। এতে সুফল পাওয়া যায়। জেনে নিন যেভাবে কম্পিউটারের গতি বাড়ানো যাবে।

পারর্ফমেন্স বুস্টার সফটওয়্যারথার্ড পার্টি অনেক সফটওয়্যার আছে যেগুলো উইন্ডোজ-১০ এর গতি বৃদ্ধি করে। এরকম অনেক সফটওয়্যারের আড়ালে থাকতে পারে ম্যালওয়্যার। চাইলে আইলো সিস্টেম মেকানিক সফটওয়্যারটি নামাতে পারেন।

আনইনস্টলকম্পিউটারে যে অ্যাপগুলো ইনস্টলড আছে সেগুলোও অনেক জায়গা দখল করে রাখে। এতে পিসি ওপেন হতে সময় বেশি লাগে। র‌্যামেরও উপরেও চাপ পরে। তাই অপ্রোয়জনীয় অ্যাপগুলো আনইনস্টল করতে হবে।

এর জন্য প্রথমে উইন্ডোস লোগো স্টার্ট বাটনে রাইট ক্লিক করতে হবে। এরপর অ্যাপস অ্যান্ড ফিচারর্স-এ ক্লিক করলে ইনস্টলড অ্যাপের লিস্ট পাওয়া যাবে। সেখানে অ্যাপের নামের উপর ক্লিক করলেই আনইনস্টলের অপশন পাওয়া যাবে।

এছাড়াও কন্ট্রোল প্যানেলে অপ্রয়োজনীয় প্রোগ্রামগুলো ডিলেট করা যাবে। স্টার্ট আপ প্রোসেসপিসি স্টার্ট করা মাত্র অনেক প্রোগ্রাম চালু হয়ে যায়। এগুলো বন্ধ করতে টাস্ক ম্যানেজার চালু করতে হবে। কন্ট্রোল+সিফট+এস্কেপ চাপলেই প্রোগ্রামটি চালু হবে। এরপর স্টার্টআপ কলাম সেকশনে ক্লিক করতে হবে। এতে থাকা প্রোগ্রাম লিস্টের উপর রাইট ক্লিক করলে ডিসঅ্যাবলড অপশনটি আসবে।

এতে ক্লিক করলেই প্রোগ্রামটি আর পিসি চালু করার সময় হাজির হবে না। ডিস্ক খালি করা ডিস্ক অনেক অপ্রয়োজনীয় ফাইল, অফলাইন ওয়েব পেইজ ও ইনস্টলার ফাইল থাকে। এগুলো ডিলেট করতে স্টার্ট ম্যানুতে গিয়ে ডিস্ক ক্লিনআপ টাইপ করতে হবে।

এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে পিসিতে থাকা ৪টি ড্রাইভই একে একে বেছে নিয়ে অপ্রয়োজনীয় ফাইল ডিলিট করা যাবে। এসএসডি ইন্সটলসলিড স্টেট ড্রাইভ পিসিতে যুক্ত করলে তাতে পিসির গতি অনেক বেড়ে যায়।

পুরোনো পিসির গতি বাড়াতে অনেকেই আলাদাভাবে এসএসডি কার্ড সংযুক্ত করেন। এসএসডি কার্ডযুক্ত পিসিতে অ্যাডোবি ফটোশপের মতো সফটওয়্যারও লোড হয় দ্রুত গতিতে। ধারণ ক্ষমতা ভেদে এসএসডি কার্ডের দাম ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। ভাইরাস চেকম্যালওয়্যার ঠেকাতে উইন্ডোস অপারেটিং সিস্টেম চালিত পিসিতে বিল্ট-ইন ডিফেন্ডার থাকে।

থার্ড পার্টি অ্যাপ নামিয়েও ভাইরাস আছে কিনা তা জানা যায়। এমনই একটি থার্ড পার্টি অ্যাপ হলো ম্যালওয়্যারবিটস অ্যান্টি-ম্যালওয়্যার। এটা ফ্রিতেই অ্যান্টি-ম্যালওয়্যার প্রোটেকশন দেবে।

টিপস অ্যান্ড নোটিফিকেশন বন্ধ করা অসংখ্য অ্যাপ ইনস্টল করা মানেই অগণিতবার নোটিফিকেশন পাওয়া। নোটিফিকেশনগুলো অফ রাখতে সেটিংস অ্যাপে ক্লিক করতে হবে। এরপর সার্চ বারে গিয়ে চয়েজ হুইচ অ্যাপস শো নোটিফিবেশন লিখে টাইপ করতে হবে।

এরপর স্ক্রল করে দেখা যাবে কোন কোন অ্যাপ নোটিফিকেশন পাঠায়। নোটিফিকেশন অফ করতে অ্যাপের পাশে থাকা টগল বাটনটি অফ করতে হবে। এতে অসময়ে যখন তখন আর নোটিফিকেশন আসবে না। এসব পদ্ধতি মেনে চললে আপনার কম্পিউটারের গতি বাড়বে।

এমএমএফ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]