ছুটির দিনে ঠিকানায় ভ্রমণ

ভ্রমণ ডেস্ক
ভ্রমণ ডেস্ক ভ্রমণ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৩:২৭ পিএম, ০৪ মার্চ ২০২১

রাজধানীর একেবারেই কাছে গড়ে উঠেছে দৃষ্টিনন্দন এক রিসোর্ট। হাজারো ফুল দিয়ে সাজানো এ রিসোর্ট এখন পর্যটকদের কাছে স্বপ্নের ঠিকানা। ছুটির দিনগুলোতে সেখানে থাকে উপচে পড়া ভিড়।

ঢাকার অদূরে অবস্থিত এ রিসোর্টে রয়েছে উন্নতমানের কফিশপও। সব মিলিয়ে ছুটির দিন কাজে লাগাতে চাইলে ঘুরে আসতে পারেন ঠিকানা থেকে।

jagonews24

ঠিকানা ডে আউটার্স তৈরি করা হয়েছে দেশীয় ঐতিহ্যবাহী কাঠের বাড়ির নান্দনিক কারুকার্যে। ঠিকানায় প্রবেশের মূল ফটক থেকে শুরু করে পুরোটাজুড়ে খুঁজে পাবেন গ্রামীণ শৈল্পিক ছোঁয়া, আকাশ ও প্রকৃতির নানা সময়ে নানা রং ও রূপ।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা ঠিকানা থেকে সূর্যদয় এমনকি সূর্যাস্ত দেখার জন্যও ঠিকানায় সবাই ভিড় জমাচ্ছেন। এ বাড়ির সামনে রয়েছে বিশাল আমবাগান ও সবুজ চাদরে মোড়ানো মাঠ। ঠিকানার রেস্টুরেন্টে যেসব খাবার তৈরি হয়, তার বেশিরভাগই এ মাঠের শাক-সবজি দিয়ে।

jagonews24

মাটির চুলায় রান্না করা খাবারও আপনি সেখানে খেতে পারবেন। দেশীয় খাবারের পাশাপাশি ঠিকানায় বিভিন্ন বিদেশি খাবারের সেট মেন্যু পাবেন। পছন্দমতো খাবার বেছে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

ঠিকানাতে রয়েছে উন্নতমানের কফিশপ। যেখানে সুদূর ব্রাজিল থেকে বিন এনে কফি তৈরি করা হয়। নিয়ম অনুযায়ী অগ্রিম টেবিল বুকিং করে পছন্দমতো খাবার খেতে আসতে পারবেন এ ঠিকানায়।

jagonews24

ভোর ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত আপনি ঠিকানায় সময় কাটাতে পারবেন। মাত্র ২০০ টাকা প্রবেশমূল্য দিয়ে ঠিকানায় ঢুকে আপনি পেতে পারেন নৈস্বর্গিক অনুভূতি। চারপাশে দিগন্ত বিস্তৃত বাহারি রঙা ফুল দেখে আপনার মন মুহূর্তেই ভালো হয়ে যাবে।

jagonews24

ব্যক্তিগত উদ্যোগে নিজের স্বপ্নের ঠিকানা গড়ে তুলেছেন তায়্যেবা আফরিন। তিনি এ ক্যাফের ম্যানেজার ও প্রতিষ্ঠাতা। তিনি বলেন, ‘করোনাকালীন সময়ে ঠিকানা নানা ধরনের শীতের ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত থাকা। প্রতি মৌসুমেই বর্ণিল সব ফুল দিয়ে সাজানো হবে ঠিকানা।’

jagonews24

যেভাবে যাবেন ঠিকানায়

ঠিকানা ডে আউটার্স গুলশান থেকে ২-৩ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। বাড্ডার বেরাইদ বালু নদীর পাড়ে দৃষ্টিনন্দন কাঠের বাড়িতে ঘুরতে যেতে পারেন সকাল ৬টা থেকে রাত ১২ পর্যন্ত।

jagonews24

আপনার প্রবেশ বুকিং নিশ্চিত করতে, এই নম্বরে- 01726666663 কল অথবা এসএমএস করুন (কমপক্ষে ১ দিন আগে)। বুকিং ছাড়া ঠিকানায় প্রবেশ নিশ্চিত হবেনা।

জেএমএস/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]