সিলেটের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে মানুষের ঢল

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ০২:২৫ পিএম, ১০ জুন ২০১৯

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে টানা ৯ দিনের ছুটি পেয়ে পর্যটকদের ঢল নেমেছে সিলেটের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে। প্রায় কয়েক লাখ ভ্রমণপিপাসু ছুটে আসেন সিলেটের প্রকৃতিকন্যা জাফলং, জল পাথরের বিছনাকান্দি, সোয়াম ফরেস্ট রাতারগুল, চা বাগান, জাফলংয়ের মায়াবী ঝরনা ও পান্তুমাইয়ের ফাটাছড়া ঝরনাধারায়। উচ্ছ্বাসে-আনন্দে তারা স্বজনদের সাথে উপভোগ করেন ঈদের আনন্দঘন মুহূর্ত।

সরকারি অর্থায়নে এখানকার পর্যটন কেন্দ্রগুলোর উন্নয়নের ফলে দেশের অপরাপর পর্যটন কেন্দ্রের মতো প্রাকৃতিক রূপ বিভিন্ন সাজে সেজেছে। প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর এসব সৌন্দর্য উপভোগ করতে ছুটে এসেছেন দেশের নানা প্রান্তের ভ্রমণপিপাসু।

jagonews24

সিলেটের মালনীছড়া, আহমদ টি, লাক্কাতুরা ন্যাশনাল টি ও তারাপুর চা বাগান ঘুরে দেখা গেছে, ঈদের ছুটির শেষ দিকে এসে পর্যটকরা যাওয়ার সময় চা বাগানগুলোর উঁচু-নিচু, আঁকা-বাকা পথে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। পছন্দসই স্পটে ছবি তুলছেন আর আনন্দ-উল্লাস করছেন যে যার মতো।

এবার ঈদের ছুটিতে বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত তিন দিন রাতারগুল, জাফলং আর শ্রীমঙ্গলে স্বপরিবারে সিলেটের পর্যটন কেন্দ্রগুলো ভ্রমণ করেছেন কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক। এসময় তার সাথে ছিলেন কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরওয়ার হোসেন।

প্রকৃতিকন্যা জাফলংয়ে সারা বছরই পর্যটক লেগে থাকে। ঈদ মৌসুম এলে যেন এখানে পর্যটকদের সমাগম থাকে চোখে পড়ার মতো। ঈদের আনন্দকে ভাগাভাগি করতে কেউ স্বপরিবারে, কেউবা বন্ধু-বান্ধব সাথে নিয়ে ছুটে এসেছেন গোয়াইনঘাটের পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে।

jagonews24

জাফলং যেন আগের মতোই তার আপন মাধুর্য দিয়ে ঘিরে রেখেছে প্রকৃতিপ্রেমীদের। অন্যান্য বছর এখানকার যাতায়াতের ব্যাপারে নানা অভিযোগ থাকলেও এবার ছিল ব্যতিক্রম। বেশিরভাগ পর্যটকই রাস্তাঘাটের উন্নতি দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি মায়াবী ঝরনা, বিছনাকান্দি, রাতারগুল, পান্তুমাইয়ের ফাটাছড়ায়ও অসংখ্য পর্যটক লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

রোববার বিকেলে জাফলং গিয়ে দেখা যায়, জাফলং জিরো পয়েন্টে দাঁড়িয়ে কেউ কেউ ভারতের ঝুলন্ত ব্রিজ দেখছেন আর সেলফি তুলছেন। পিয়াইনের স্বচ্ছ জলে গা ভিজিয়ে সাঁতার কাটছেন অনেকেই। এসব মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি করে স্মরণীয় করে রাখছেন তারা।

ঢাকার উত্তরা থেকে সপরিবারে আসা শাহাব উদ্দীন মুন্সি জানান, ঈদের ছুটি কাটাতে পরিবার নিয়ে তিনি জাফলংয়ে এসেছেন। তবে এখানে অনেকবার এলেও প্রাকৃতিক মায়া যেন তাকে আটকে রেখেছে। আগের চেয়ে এবার রাস্তাঘাটের উন্নতি এবং পর্যটনের উন্নয়নে তার মনে স্বস্তি এসেছে।

jagonews24

জাফলং ট্যুরিস্ট পুলিশের ইনচার্জ দেবাংশু কুমার দে জানান, এবারের ঈদ মৌসুমে প্রচুর পর্যটক এসেছে। তাদের নিরাপত্তা দিতে ট্যুরিস্ট পুলিশের টিমসহ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন টিম মাঠে নিয়োজিত রয়েছে।

গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিশ্বজিত কুমার পাল জানান, সরকার পর্যটনের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ায় সারা বছরই পর্যটন কেন্দ্রগুলোতে উপচেপড়া ভিড় থাকে। পর্যটকরা যাতে নিরাপদে ভ্রমণ করতে পারে, সে ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এখানে ট্যুরিস্ট পলিশ, থানা পুলিশ, বিজিবি, আনসার ও রোভার স্কাউটের সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছেন।

ছামির মাহমুদ/এসইউ/আরআইপি

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :