লিঙ্গ সমতার লড়াইয়ে শর্তহীন সমর্থনের অঙ্গীকার ট্রুডোর

মহিউদ্দিন সরকার
মহিউদ্দিন সরকার মহিউদ্দিন সরকার ভ্যানকুভার, কানাডা থেকে
প্রকাশিত: ০৬:০৩ পিএম, ০৪ জুন ২০১৯

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নারী অধিকারের পক্ষে লড়াইরত অধিকারকর্মীদের উদ্দেশে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, তার দেশের নেতৃত্বের ভিত্তি সব সময় লিঙ্গ সমতাকে কেন্দ্র করেই অব্যাহত থাকবে। এই নীতিতে কানাডা সরকার অটল থাকবে বলে অঙ্গীকার করছেন তিনি।

সোমবার স্থানীয় সময় বিকেলের দিকে বিশ্বের বৃহত্তম নারী অধিকারবিষয়ক উইমেন ডেলিভার কনফারেন্স-২০১৯ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন কানাডার এই প্রধানমন্ত্রী। ভ্যানকুভার কনভেনশন সেন্টারে চারদিনের বৈশ্বিক এ সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষণা করেন তিনি।

উদ্বোধনী ভাষণে তিনি বলেন, আমরা নারী অধিকারের শক্তিশালী কণ্ঠস্বর, দৃঢ়চেতা মিত্র হবো। এই লড়াইয়ের জনপ্রিয়তা যখন তুঙ্গে থাকবে শুধুমাত্র তখন নয়, বরং সর্বদা শর্তহীনভাবে আমাদের এই সমর্থন অব্যাহত থাকবে।

বিশ্বের ১৬০টি দেশের আট হাজারের বেশি সমাজ অধিকার কর্মী, প্রভাবশালী অ্যাকটিভিস্ট, আইনজীবী, শিক্ষাবিদ, নেতা, মানবাধিকার কর্মী ও সাংবাদিক ভ্যানকুভারে উইমেন ডেলিভারের বৈশ্বিক এই সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন। এছাড়া অনলাইনে সংগঠনটির ওয়েবসাইটে আরো প্রায় ১ লাখ মানুষ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উইমেন ডেলিভারের বিভিন্ন অনুষ্ঠান ও ভার্চুয়াল কনফারেন্সে অংশ নিয়েছেন।

ভ্যানকুভারে এবারের এই সম্মেলনে ১৩৯টি দেশের প্রায় ১ হাজার ৪০০ তরুণ প্রতিনিধি যোগ দিয়েছেন। সম্মেলন শুরুর আগে উইমেন ডেলিভারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাতিজা ইভারসেন বলেছিলেন, ‘ক্ষমতা, অগ্রগতি এবং পরিবর্তনের ব্যানারে কীভাবে নারী ও তরুণীদের উন্নয়নের গতিকে ত্বরান্বিত করা যায়; এবারের সম্মেলনে সেটিই হবে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু।’

২০১৬ সালে ডেনমার্কের কোপেনহেগেন শহরে সর্বশেষ এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। নারী ও তরুণীদের সুরক্ষা এবং অধিকার ইস্যুতে কানাডার সুনামের জন্য চলতি বছরের সম্মেলনের জন্য ভ্যানকুভারকে বেছে নেয়া হয়। আগামী ৬ জুন এই সম্মেলনের পর্দা নামবে।

বিশ্বে মাতৃ মৃত্যুহার মোকাবেলার লক্ষ্যে ২০০৭ সালে প্রথমবারের মতো উইমেন ডেলিভার সম্মেলন শুরু হয়। ভ্যানকুভারে এই সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন পাকিস্তানের আলোচিত শিক্ষা অধিকার কর্মী মালালা ইউসুফ জাইয়ের বাবা ও মালালা ফাউন্ডেশনের সহ-প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউদ্দিন ইউসুফ জাইসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের উদ্যোক্তারা।

জাস্টিন ট্রুডো বলেন, আমরা জানি, আমরা পা দিয়ে প্যাডেল চালানো থামাতে পারবো না। তার সরকার সবসময় লিঙ্গ সমতা আন্দোলনের অংশীদার হবে বলেও জানান তিনি। ট্রুডো বলেন, আমরা উইমেন ডেলিভারের সম্মেলনে এসেছি, কারণ আমরা একটি সুন্দর ভবিষ্যতে বিশ্বাস করি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কানাডার এই প্রধানমন্ত্রীকে একজন ‘নারীবাদী সহকর্মী’ হিসেবে পরিচয় করিয়ে দেন উইমেন ডেলিভারের প্রেসিডেন্ট কাটজা ইভারসেন। জাস্টিন ট্রুডো বলেন, নারীদের অগ্রগতি হোঁচট খেতে পারে। আমরা এমন হতে দেখছি। লিঙ্গ সমতার বিষয়টি এখন আক্রান্ত। সামনের সারিতে থেকে একজন নারীবাদী হওয়া কতটা কঠিন তা আমি কল্পনা করতে পারি।

এসআইএস/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :