ভোলায় বেড়েছে নারী নির্যাতন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ভোলা
প্রকাশিত: ০৪:০২ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০২১

ভোলায় হঠাৎ করে বেড়েছে নারী নির্যাতন। তবে গত বছরের চেয়ে এবার ধর্ষণ কিছুটা কমলেও বেড়েছে শারীরিক-মানসিক নির্যাতন। নারী নির্যাতন প্রতিরোধে জেলায় মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তর বিভিন্ন ধরনের জনসচেতনামূলক কাজ করলেও পারছে না নির্যাতনের সংখ্যা কমিয়ে আনতে।

ভোলা মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের তথ্যমতে, জেলায় চলতি বছরের ২০ নভেম্বর পর্যন্ত ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ১৫ জন। এছাড়াও ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধরনের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ২৮০ নারী। এদের মধ্যে ভোলা সদর উপজেলায় ২০৪ জন, বোরহান উদ্দিনে ১০ জন, দৌলতখানে ৩০ জন, লালমোহনে ২১ জন, তজুমদ্দিনে ৭ জন, চরফ্যাশনে ৫ জন ও মনপুরা উপজেলায় ৩ জন।

অন্যদিকে ২০২০ সালের ধর্ষণের শিকার হয়েছেন ২০ জন বিভিন্ন বয়সী নারী। এছাড়াও ধর্ষণসহ বিভিন্ন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন ২৪৯ জন নারী। তবে ২০২০ সালের চেয়ে এ বছর ধর্ষণের সংখ্যা কমলেও বেড়েছে বিভিন্ন ধরনের নির্যাতন।

ভোলা মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. ইকবাল হোসেন জাগো নিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, জেলায় নারী নির্যাতন প্রতিরোধে তারা মাঠ পর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছেন। বিভিন্ন ইউনিয়নে তারা নারী নির্যাতন প্রতিরোধে জনসচেতনামূলক ওঠান বৈঠক ও সভা করে যাচ্ছেন। এছাড়াও নির্যাতনের শিকার নারীদের আইগত সহায়তার জন্য তাদের সহযোগিতা করা হচ্ছে।

তিনি জানান, ভোলায় নির্যাতনের সংখ্যা কমিয়ে আনতে জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি মাধ্যমে কাজ করা হচ্ছে। এছাড়াও নারীদের স্বাবলম্বী করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ধরনের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

জুয়েল সাহা বিকাশ/এমআরএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]