২০০ টাকার পান এখন ৫৫ টাকা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পিরোজপুর
প্রকাশিত: ০৪:০৮ পিএম, ০৪ জানুয়ারি ২০২০

পিরোজপুরে পানের ভালো ফলন হলেও তীব্র শীতের কারণে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন চাষিরা। শীত ও কুয়াশার প্রভাবে লতা থেকে ঝরে পড়া ও বিভিন্ন পোকার আক্রমণে নষ্ট হচ্ছে পান। এতে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছেন তারা। বছর শেষে এ সময়ই কিছুটা লাভের মুখ দেখেন চাষিরা। কিন্তু অব্যাহত শীত ও কুয়াশার কারণে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে।

সদর উপজেলার কদমতলা ইউনিয়নের পান চাষি সমির বলেন, ‘শীত ও কুয়াশায় পান পাতা হলুদ হয়ে ঝরে যাচ্ছে। আবার পছলা পোকাসহ বিভিন্ন আক্রমণে নষ্ট হচ্ছে পান। এভাবে চলতে থাকলে লাভ তো দূরের কথা, আসল টাকাই আসবে না।’

pan

সদর উপজেলার রানীপুর গ্রামের পান চাষি উত্তম দাস বলেন, ‘বর্তমানে পানের বাজার মূল্য পোন প্রতি ১৫০-২০০ টাকা হলেও ঝরা পান বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫৫ টাকায়। আগের মতোই পানের বরজে পলিথিনের ছাউনি দিলেও কোনো কাজ হচ্ছে না। সমস্যার কথা কৃষি অফিসে জানালেও কোনো সহযোগিতা পাওয়া যাচ্ছে না।’

pan

পিরোজপুর খামার বাড়ির উপ-পরিচালক আবু হেনা মোহাম্মদ জাফর বলেন, ‘জেলায় এ বছর ৯৬৮ হেক্টর জমিতে পান চাষ করা হয়েছে। এ বছর শীত বেশি থাকায় পান পাতা ঝরে যাচ্ছে। তবে আমরা সহযোগিতা নিয়ে চাষিদের পাশে সব সময় থাকার চেষ্টা করি।’

মাহামুদুর রহমান মাসুদ/এসইউ/জেআইএম