আমেরিকা মহাদেশের ‘সুপার ফুড’ কিনোয়া চাষে সাফল্য

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি লালমনিরহাট
প্রকাশিত: ০৩:৩২ পিএম, ৩০ এপ্রিল ২০২২

লালমনিরহাট সদর উপজেলায় কিনোয়া চাষ করে সাফল্যের মুখ দেখেছেন এক কৃষক। উত্তর আমেরিকার শস্য কিনোয়াকে বলা হয় সুপারফুড। দানাদার ফসলটি থেকে উচ্চ আমিষ সমৃদ্ধ খাবার তৈরি হয়। দ্বিতীয়বারের মতো লালমনিরহাটে কিনোয়া চাষে সাফল্য পাওয়ায় সেখানে আবারও এই ফসল চাষ করা হচ্ছে।

এর আগে লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর এলাকায়র ১৩ শতক জমিতে কিনোয়া চাষ করা হয়। লালমনিরহাট সদর এলাকার মাটি ও আবহাওয়া ভালো থাকায় কিনোয়ার আশানুরূপ ফলন পাওয়া যাচ্ছে। একসময় কৃষকরা তামাক চাষ বাদ দিয়ে কিনোয়া চাষের দিয়ে ঝুঁকবে বলে আশা প্রকাশ করছে কৃষি বিভাগ।

জানা গেছে, লালমনিরহাট সদর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নে ডেবডেবীরহাটের হাতুরা গ্রামের মুকুল মিয়া ৫০ শতাংশ জমিতে কিনোয়া চাষ করেছেন। গত বছর ১৩ শতাংশ জমিতে তিনি এর চাষ করেছিলেন। এরই মধ্যে তারা কিনোয়া ঘরে তুলে একটি বেসরকারি কোম্পানির কাছে প্রতিকেজি ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকা দরে বিক্রয় করেছেন। চলতি বছরের নভেম্বরে আবারও কিনোয়া চাষ শুরু করবেন।

সদর উপজেলার হাতুরা গ্রামের কিনোয়া চাষি মুকুল মিয়া বলেন, ‘গত বছর ১৩ শতাংশ জমিতে কিনোয়া চাষ করে ৯০ কেজি ফলন পেয়েছি। একটি বেসরকারি কোম্পানির সহায়তায় কিনোয়া চাষ করছি। তারাই আমার কাছ থেকে কিনোয়া কিনেছেন। এ গাছের পাতা শাক হিসেবে ব্যবহার করা যায়। বাজারে বিক্রির সুবিধা পেলে আরও বেশি জমিতে কিনোয়া চাষ করতাম।

তিনি আরও জানান, প্রতি শতাংশ জমিতে কিনোয়া চাষ করতে খরচ হয়েছে ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা। প্রতি কেজি কিনোয়া ৫৫০ থেকে ৬০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে। প্রতিবছর নভেম্বর মাসে কিনোয়া বীজ বপন শুরু হয়।

আমেরিকা মহাদেশের ‘সুপার ফুড’ কিনোয়া চাষে সাফল্য

একই গ্রামের কৃষক আব্দুস সামাদ বলেন, বাজারে যদি কিনোয়ার বীজ পাওয়া যেত তাহলে আমি পরীক্ষামূলক চাষ করতাম। কিনোয়া চাষে কম খরচে অধিক ফসল ও অর্থ পাওয়া যায়।

একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কৃষিবিদ ইকবাল হাসান বলেন, আমার প্রতিষ্ঠান কিনোয়ার সাপ্লাই চেইন তৈরি করতে কাজ করছে। আপাতত বীজের জন্য একজন কৃষক দিয়ে উৎপাদন চলছে। এদেশে কিনোয়ার প্রচুর চাহিদা আছে। কিছু প্রতিষ্ঠান বিদেশ থেকে এটি আমদানি করে। তিনি আরও বলেন, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫ বছর গবেষণার পর গতবছর দেশে মাঠ পর্যায়ে প্রথম কিনোয়ার চাষ হয়।

আমেরিকা মহাদেশের ‘সুপার ফুড’ কিনোয়া চাষে সাফল্য

লালমনিরহাট সদর উপজেলায়র কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার খোরশেদ আলম জাগো নিউজকে বলেন, ২০২১ সালে কিনোয়া প্রথমবার মতো সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর এলাকায় চাষ হয়েছিল। এবছর সদর উপজেলায় কিনোয়া কোথায় চাষ হয়েছে তার তথ্য নেই।

লালমনিরহাট কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শামীম আশরাফ জাগো নিউজকে বলেন, কিনোয়া উত্তর আমেরিকা মহাদেশের ফসল। জেলা ২০২১ সালে প্রথম সদর উপজেলা মহেন্দ্রনগর এলাকায় চাষ হয়। এবছর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নে ডেবডেবীর হাটের হাতুরা গ্রামে চাষ হয়েছে শুনেছি। তিনি আরও বলেন, কিনোয়া চাষের জন্য উপযুক্ত এ জেলার মাটি। আশা করি কিনোয়া চাষ করে কৃষকরা লাভবান হোক।

রবিউল হোসেন/এমএমএফ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]