আজকের কৌতুক: সুয়েজ খাল কে খনন করেছেন?

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১২:০০ পিএম, ৩১ আগস্ট ২০২১

সুয়েজ খাল কে খনন করেছেন?
দুই বন্ধু তাদের বাবাদের কাজ-কর্ম নিয়ে তর্ক-বিতর্ক করছেন—
প্রথম বন্ধু: তুমি কখনো সুয়েজ খালের নাম শুনেছ?
দ্বিতীয় বন্ধু: শুনব না কেন? এটা তো ছোট্ট বাচ্চাও জানে।
প্রথম বন্ধু: এই খাল পুরোটাই আমার বাবা খনন করেছিলেন।
দ্বিতীয় বন্ধু: চাপাবাজি ছাড়ো, এটা কখনো হতেই পারে না। কিন্তু তুমি কি ডেড সির নাম জানো?
প্রথম বন্ধু: কেন, কী হয়েছে তাতে?
দ্বিতীয় বন্ধু: এত কিছু জানো, আর এটাই জানো না। আমার বাবাই তো ওটাকে মেরে ফেলেছিলেন।

****

একসঙ্গে দুটি টিকিট কেনার কারণ
এক ভদ্রলোক ট্রেনে চেপে কোথাও যাচ্ছিলেন। চেকার তার কাছে টিকিট দেখতে চাইলেন। তিনি ভদ্রভাবে জানালেন, ‘আমার ডান পকেটে একটি আর বাম পকেটে আরেকটি টিকিট আছে। কোনটা দেখাব?’ চেকার অবাক হয়ে বললেন, ‘ঠিক আছে, দুটোই দেখাও।’

দুটো টিকিট দেখার পর চেকার তার কাছে একসঙ্গে দুটো টিকিট কেনার কারণ জানতে চাইলেন। ভদ্রলোক বললেন, ‘যদি কেউ আমার একটি পকেট মেরে দেয়, তাহলে তো আরেকটি পকেটে টিকিট থাকল। সেটা দিয়ে কাজ চালাব।’ চেকার বললেন, ‘মনে করো, তোমার দুটো পকেটই চুরি হয়েছে, তখন কী করবে?’

তখন ভদ্রলোক বললেন, ‘আরে ভাই, আমি কি অত বোকা না কি, শুধু দুটো টিকিট নিয়েই আমি ট্রেনে চেপে বসেছি মনে করেছেন! আমার প্যান্টের পকেটে তো পুরো এক মাসের ফ্রি পাসই আছে।’

****

মুম্বাই শহরে সূর্য কোন দিকে ওঠে?
এক ভদ্রলোক তার বাবার সঙ্গে দেখা করতে প্রথমবারের মতো মুম্বাই শহরে গেছেন। সকালবেলা তার বাবা শহরের এক মাথায় তাকে নামিয়ে দিয়ে ঘোরাঘুরি করে যেদিকে সূর্য ওঠে সে পথ ধরে বাসায় যেতে বললেন।

ঘোরাঘুরি করার পর তিনি আর বাসায় ফেরার পথ খুঁজে পাচ্ছিলেন না। তাই এ নিয়ে ভাবতে লাগলেন। একবার চিন্তা করলেন, কাউকে জিজ্ঞেস করা যাক।

সেই পথ ধরেই হেঁটে যাচ্ছিলেন এক ব্যক্তি। ভদ্রলোক ওই ব্যক্তিকে প্রশ্ন করলেন, ‘দাদা, এই শহরে সূর্যটা কোন দিক দিয়ে ওঠে, বলতে পারেন?’ সেই ব্যক্তি কিছুক্ষণ চিন্তা করে বললেন, ‘না ভাই। আমি এই শহরে নতুন এসেছি। এখনো ভালো করে দেখতেই পারিনি যে, এখানে সূর্যটা কোন দিকে ওঠে।’

এসইউ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]