আজকের জোকস: পাকা শিকারি

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ১১:০৮ এএম, ০৮ মে ২০২২

পাকা শিকারি
নিজেকে খুব পাকা শিকারি হিসাবে জাহির করে মামা ভাগ্নেকে নিয়ে শিকার করতে গেলেন। একঝাঁক উড়ন্ত বক দেখে মামা বললেন—
মামা: দেখিস, এখান থেকে গুলি করে একটাকে ফেলে দেব।

মামা গুলি করলেন কিন্তু একটা বকও পড়ল না।
ভাগ্নে: কই মামা, গুলি তো লাগল না।
মামা: পৃথিবীর সবচেয়ে আশ্চর্যজনক ঘটনাটাই এখন ঘটেছে। গুলি লাগার পরও বক উড়ে যাচ্ছে।

****

ভাবীর হাতের রান্না
বাবুর অফিসের কাজে মন বসে না। তার গা ম্যাজম্যাজ করে, মেজাজটাও খারাপ হয়ে থাকে। বস একদিন ডাকলেন তাকে—
বস: শোনো, এভাবে তো চলবে না। তোমাকে চাঙা হতে হবে। আমারও এরকম হতো আগে। তখন কী করতাম জানো? লাঞ্চ আওয়ারে বাড়ি চলে যেতাম। তোমার ভাবীর হাতের মজার রান্না খেয়ে, ঘন্টাখানেক তাকে চুটিয়ে গল্প করতাম। এরপর থেকে আমি একদম চাঙা, কোনো সমস্যা হয় না। তুমিও ওরকম একটা কিছু করে দেখো, ফল পাবে।

সপ্তাখানেক পর বস দেখলেন, অফিসে বাবুর কাজ চলছে দারুণ। টেলিফোন, ফ্যাক্স, কম্পিউটার নিয়ে দক্ষযজ্ঞ কান্ড একেবারে। বস হাসলেন আর বললেন—

বস: কী মিয়া, পরামর্শ কাজে লাগলো?
বাবু: জ্বি স্যার, একেবারে হাতে হাতে। আর ভাবীর হাতের রান্না তো অপূর্ব!

****

বইয়ের ভূত-ভবিষ্যৎ
এক বন্ধু তার অন্য বন্ধুকে বলছে—
১ম বন্ধু: কী রে, প্রকাশকের সঙ্গে এতক্ষণ কী ফিসফাস করলি?
২য় বন্ধু: এই তো, আমার নতুন বইটার ভুত-ভবিষ্যৎ নিয়ে একটু আলাপ-আলোচনা করলাম।
১ম বন্ধু: তা তিনি কী বললেন?
২য় বন্ধু: বললেন, আমার বইয়ের ভূত আছে তিনি নিশ্চিত, তবে ভবিষ্যৎ নিয়ে তিনি সন্দিহান।

কেএসকে/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]