বিদ্যাসাগরের মজার ঘটনা: মালি

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:০৫ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২২

বাঙালি সমাজে ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর আজও এক প্রাতঃস্মরণীয় ব্যক্তিত্ব। আসল নাম ঈশ্বরচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে ঈশ্বরচন্দ্র শর্মা নামেও স্বাক্ষর করতেন তিনি। উনবিংশ শতকের একজন বিশিষ্ট বাঙালি শিক্ষাবিদ, সমাজ সংস্কারক ও গদ্যকার। সংস্কৃত ভাষা ও সাহিত্যে অগাধ পাণ্ডিত্যের জন্য সংস্কৃত কলেজ থেকে ১৮৩৯ সালে তিনি বিদ্যাসাগর উপাধি লাভ করেন।

সাহিত্যের জন্য পরিচিত হলেও বেশ রসিক মানুষ ছিলেন ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর। কাছের মানুষদের সঙ্গে মাঝে মধ্যেই মজা করতেন। ঈশ্বরচন্দ্র এক রোববার নিজের বাড়ির সামনের বাগানে কাজ করছিলেন। এমন সময় মেদিনীপুর থেকে চারজন লোক এলেন তার সঙ্গে দেখা করতে। তারা ভাবলেন, এ নিশ্চয়ই বাগানের মালি।
তারা বললেন, ‘বিদ্যাসাগর মশায় কি বাড়ি আছেন?’

বিদ্যাসাগর বললেন, ‘তিনি একটু ব্যস্ত। আপনারা বসুন।’

একটু পরে অতিথিরা বললেন, ‘ওহে, একটু তামাক খাওয়াতে পারো?’

বিদ্যাসাগর বললেন, ‘আজ্ঞে, পারি।’

বিদ্যাসাগর তামাক সাজিয়ে দিলেন অতিথিদের।

অতিথিরা বললেন, ‘বড্ড দেরি হয়ে যাচ্ছে। দ্যাখো না বাবু বিদ্যাসাগর মশায় কোথায়?’

বিদ্যাসাগর বললেন, ‘আমিই ঈশ্বরচন্দ্র। বলুন।’

লেখা: সংগৃহীত
ছবি: সংগৃহীত

প্রিয় পাঠক, আপনিও অংশ নিতে পারেন আমাদের এ আয়োজনে। আপনার মজার (রম্য) গল্পটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়। লেখা মনোনীত হলেই যে কোনো শুক্রবার প্রকাশিত হবে।

কেএসকে/এএসএম

পাঠকপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল জাগোনিউজ২৪.কমে লিখতে পারেন আপনিও। লেখার বিষয় ফিচার, ভ্রমণ, লাইফস্টাইল, ক্যারিয়ার, তথ্যপ্রযুক্তি, কৃষি ও প্রকৃতি। আজই আপনার লেখাটি পাঠিয়ে দিন [email protected] ঠিকানায়।