প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি : ছাত্রদল কর্মীকে বহিষ্কার করলো ইবি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৯:৩০ পিএম, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করায় এক ছাত্রদল কর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

একইসঙ্গে ঘটনা তদন্তের জন্য তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এস এম আব্দুল লতিফ।

এর আগে বেলা ১১টার দিকে ওই ছাত্রদল কর্মীকে পিটিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ওই ছাত্রদল কর্মীর নাম মারুফ খান। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

জানা গেছে, সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী তরুণদল’ নামক পেজের একটি পোস্টে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটূক্তি করেন মারুফ।

পরে বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নজরে আসার পর মঙ্গলবার মারুফ ক্লাস করতে আসলে অনুষদ ভবনের নিচতলায় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিমের কর্মীরা তাকে মারধর করে প্রক্টর অধ্যাপক ড. মাহবুবর রহমানের মাধ্যমে তাকে পুলিশে সোপর্দ করে।

ঘটনার পরে বিকেল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এক জরুরি সভায় তাকে সাময়িক বহিষ্কার করে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে।

কমিটিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. আনোয়ারুল হককে আহ্বায়ক করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- বাংলা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক গৌতম কুমার দাস এবং সহকারী প্রক্টর ড. সাজ্জাদ হোসেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান বলেন, কটূক্তিকারী ওই শিক্ষার্থীকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও বহিষ্কার করা হয়েছে। যাতে জননেত্রীকে নিয়ে কেউ এমন মন্তব্য করতে সাহস না করে।

ফেরদাউসুর রহমান সোহাগ/এএম/আইআই

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :