ঢাবি শিক্ষককে বরখাস্তের দাবিতে উপাচার্যকে ছাত্রলীগের স্মারকলিপি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৪:২৯ পিএম, ২৮ মার্চ ২০১৮
ঢাবি শিক্ষককে বরখাস্তের দাবিতে উপাচার্যকে ছাত্রলীগের স্মারকলিপি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খানকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বরখাস্ত করতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। তার বিরুদ্ধে ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগ আনা হয়েছে। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দলের যুগ্ম-আহ্বায়ক হিসেবে বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন।

বুধবার দুপুরে এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বর্তমানে দেশের বাইরে অবস্থান করায় তার পক্ষে স্মারকলিপি গ্রহণ করেন উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. নাসরীন আহমেদ।

এর আগে মধুর ক্যান্টিন থেকে মিছিল সহকারে ছাত্রলীগ উপাচার্যের কার্যালয়ে আসে। স্মারকলিপি প্রদানের সময় উপস্থিত ছিলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি আবিদ আল হাসান, সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কর্মসূচি ও পরিকল্পনা বিষয়ক সম্পাদক রাকিব হোসেন, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অানিসুল ইসলাম জুয়েল, পল্লী কবি জসিম উদ্দীন হল ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফ হোসেন প্রমুখ।

স্মারকলিপিতে ছাত্রলীগ তিন দফা দাবি তুলে ধরে। দাবিসমূহের মধ্যে ছিল- অভিযুক্ত শিক্ষককে বরখাস্ত করা, আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করা এবং অভিযুক্ত শিক্ষককে জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়া।

সম্প্রতি একটি জাতীয় দৈনিকে অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খানের লেখা 'জ্যোতির্ময় জিয়া' শিরোনামে একটি প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়। যেখানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অবমাননা, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি ও বঙ্গবন্ধুর শাসনামল নিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট বক্তব্য দিয়েছেন বলে দাবি করেছে ছাত্রলীগ।

প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদে বিক্ষোভ ও তার কুশপুত্তলিকা দাহ করে ছাত্রলীগ। এরপর এক বিজ্ঞপ্তিতে অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খান প্রবন্ধে লেখা বিতর্কিত শব্দ সমূহের জন্য দুঃখ প্রকাশ ও ক্ষমা চেয়ে সেগুলো প্রত্যাহার করেন।

এমএইচ/জেএইচ/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com