মহাসড়কে বাস আটকে ইবি ছাত্রীদের বিক্ষোভ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া
প্রকাশিত: ০৮:৫৮ এএম, ১১ এপ্রিল ২০১৯

কুষ্টিয়া-খুলনা মহাসড়কে ক্যাম্পাসের বাস আটকে বিক্ষোভ করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ছাত্রীরা। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কুষ্টিয়ার কাস্টম মোড় থেকে ছেড়ে আসা একটি বাস বটতৈল বাজারে পৌঁছালে অতিরিক্ত ছাত্রীদের চাপের কারণে বাসটি থামিয়ে এর প্রতিবাদ করেন তারা। বাস বৃদ্ধির দাবিতে রাত ৮টা থেকে ঘণ্টাব্যাপী সেখানেই বিক্ষোভ করেন ছাত্রীরা। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর গিয়ে কিছু ছাত্রীকে ক্যাম্পাসে যাওয়ার ভিন্ন ব্যবস্থা করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

ঘটনাস্থলে থাকা একাধিক ছাত্রী জানান, প্রতিদিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার ট্রিপে কুষ্টিয়া থেকে ক্যাম্পাসে যাওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের তিনটি বাস বরাদ্দ রয়েছে। এর মধ্যে একটি বড় বাস ছাত্রীদের জন্য বরাদ্দ। বুধবার এই বাসটি কাস্টম মোড়েই ছাত্রীদের দিয়ে পরিপূর্ণ হয়ে যায়। ভেতরে কোনো জায়গা ফাঁকা ছিল না। এরপরও আরও অন্তত ২৫ জন ছাত্রী মজমপুর গেট থেকে বাসে উঠলে তিল ধারণের ঠাঁই থাকে না। পরে ঠাসাঠাসি করে বটতৈল বাজার পর্যন্ত আসেন তারা। সেখানে আরও সাতজন ছাত্রী ক্যাম্পাসে আসার জন্য বাসের অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে থাকেন। কিন্তু তাদের বাসে জায়গা হয় না। এ সময় ছাত্রীরা ক্ষুব্ধ হয়ে বাস থেকে নেমে যান। রাস্তায় বাসের সামনে দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন।

এ সময় তাদের অনেকে পরিবহন প্রশাসককে বিষয়টি অবহিত করেন। এ অবস্থায় ছাত্রীরা প্রায় এক ঘণ্টা রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকেন। পরে দেশরত্ন শেখ হাসিনা হল প্রভোস্ট অধ্যাপক সেলিনা নাসরিন ও প্রক্টর সহযোগী অধ্যাপক আনিছুর রহমান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। প্রক্টর একটি মাইক্রোবাসের ব্যবস্থা করলে সেটিতে ৮-১০ জন ছাত্রী ক্যাম্পাসে আসেন।

islami-university

ভুক্তভোগী ছাত্রী তাহমিনা ফেরদৌসি নিপা বলেন, বেশ কিছু দিন থেকে বাসে ঠাসাঠাসি করে আমরা ক্যাম্পাসে যাতায়াত করছি। রাতে ছাত্রীদের পরিবহনের জন্য একটি মাত্র বাস। শিক্ষার্থী বেড়েছে কিন্তু বাস বাড়েনি। এভাবে যাতায়াত বেশ অসহ্যকর। এই সমস্যার স্থায়ী সমাধান চাই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক অধ্যাপক রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, আগামী বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় অনেক গাড়ির রিকুইজেশন আছে। বুধবার গাড়ি মেরামতে দেয়া থাকে। তাই তাৎক্ষণিক বাস দেয়া সম্ভব হয়নি।

ফেরদাউসুর রহমান সোহাগ/আরএআর/জেআইএম

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :