ফের আন্দোলনের ডাক ঢাবির ৭ কলেজ শিক্ষার্থীদের

জাগো নিউজ ডেস্ক
জাগো নিউজ ডেস্ক জাগো নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ০১:৫৫ পিএম, ২২ এপ্রিল ২০১৯

তীব্র সেশন জট, ত্রুটিযুক্ত ফলাফলসহ নানা সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে ফের আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। এর অংশ হিসেবে মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) সকাল ১০টায় ঢাকা কলেজের সামনে মানববন্ধন পালনের ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

ঢাবিতে অধিভুক্তির পর থেকে তীব্র সেশন জট, ফলাফল প্রকাশে দীর্ঘসূত্রিতা, ত্রুটিযুক্ত ফলাফল প্রকাশসহ নানা সমস্যায় ভুগছেন সাত কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এসব সমস্যা সমাধানে ঢাবি কর্তৃপক্ষ দৃশ্যত কোনো পদক্ষেপই নেয়নি বলে অভিযোগ সাধারণ শিক্ষার্থীদের৷

কিছুদিন আগে প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যায় ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ইডেন কলেজের ইংরেজি বিভাগের ৩০০ শিক্ষার্থী প্রথম বর্ষে শুধুমাত্র বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস বিষয়ে অকৃতকার্য হওয়ায় সব খাতা পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেন৷ পরবর্তীতে পুনঃ মূল্যায়ন করে প্রকাশিত ফলাফলে ৩/৪ জন ছাড়া বাকি সবাই কৃতকার্য হন৷

মূলত ঢাবি কর্তৃপক্ষের এমন উদাসীনতায় আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন সাত কলেজের ক্ষুব্ধ সাধারণ শিক্ষার্থীরা। একই সঙ্গে পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে ত্রুটিমু্ক্ত ফলাফল প্রকাশসহ একই বর্ষের সব বিভাগের ফলাফল একত্রে প্রকাশ, গণহারে অকৃতকার্য হওয়ার কারণ প্রকাশসহ খাতা পুনঃ মূল্যায়ন, সাত কলেজ পরিচালনার জন্য স্বতন্ত্র প্রশাসনিক ভবন, প্রতিটি বিভাগে মাসে দুইদিন করে অধিভুক্ত সাত কলেজে মোট ১৪ দিন ঢাবি শিক্ষকদের ক্লাস নেয়া ও সেশন জট নিরসনের লক্ষ্যে একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রকাশসহ ক্রাশ প্রোগ্রাম চালু- এই ৫ দফা দাবি আদায়ে আন্দোলনে নামছেন শিক্ষার্থীরা।

জানা গেছে এ বিষয়ে ঢাবি কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ইতিবাচক সাঁড়া না পেলে মানবন্ধন থেকে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

উল্লেখ্য শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ২০১৭ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর ঢাকা কলেজ, ইডেন কলেজ, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, কবি নজরুল কলেজ, বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজ, মিরপুর বাঙলা কলেজ ও সরকারি তিতুমীর কলেজ- এই সাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাবি) অধিভুক্ত করা হয়। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বর্তমানে অধ্যয়নরত আছেন আড়াই লক্ষাধিক শিক্ষার্থী।

একই বছর পরীক্ষার রুটিনের দাবিতে আন্দোলনে যেয়ে দুই চোখ হারায় তিতুমীর কলেজের শিক্ষার্থী সিদ্দিকুর রহমান৷

নাহিদ হাসান/এমএমজেড/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]