২৪ ঘণ্টার মধ্যে রাবি উপাচার্যের অপসারণ দাবি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৬:০৬ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০২০
রাবি উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. এম আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া এবং ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এম এ বারীসহ দুর্নীতিতে অভিযুক্ত কর্মকর্তাদের আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণের দাবি জানিয়েছে ছাত্র ফেডারেশন।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) বিকেলে রাবি শাখা ছাত্র ফেডারেশনের দফতর সম্পাদক অন্তু বিশ্বাসের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি জানানো হয়।

বিবৃতিতে রাবি শাখা ছাত্র ফেডারেশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আশরাফুল আলম সম্রাট বলেন, প্রশাসনের সর্বোচ্চ কর্মকর্তাদের দুর্নীতি ও অনিয়মের ঘটনা শুধু ক্যাস্পাসের ভাবমূর্তিই নষ্ট করে না বরং পুরো শিক্ষা ব্যবস্থাকে হুমকির মুখে ফেলে দেয়। আমরা দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের দুর্নীতি ও অনিয়মের তীব্র নিন্দা জানাই এবং তাদের অপসারণ চাই।

রাবি শাখা ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মহব্বত হোসেন মিলন বলেন, গত বছর বর্তমান প্রশাসনের দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা ধারাবাহিক আন্দোলন চালিয়েছি। ওই সময় ছাত্র নেতৃবৃন্দের ওপর নানা চাপ তৈরি হলেও আমরা আন্দোলন থেকে পিছপা হইনি। একপর্যায়ে প্রশাসনকে লাল কার্ড দেখিয়ে আচার্য বরাবর খোলা চিঠি প্রেরণ করি এবং প্রশাসনের সমস্ত কার্যক্রমকে অবৈধ ঘোষণা করি।

তখন ইউজিসি বা আচার্য কেউই আমাদের কথা শোনেননি। দেরিতে হলেও দুর্নীতি ও অনিয়মের ঘটনাটি প্রমাণিত হলো। কিন্তু এখন পর্যন্ত এই দুর্নীতিবাজরা স্বপদে বহাল আছে, যা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। আমরা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে উপাচার্যসহ সকল দুর্নীতিবাজের অপসারণ দাবি করছি।

তিনি আরও বলেন, দুর্নীতিবাজের জায়গায় যাতে আর কোনো দুর্নীতিবাজ বসতে না পারে সেজন্য প্রশাসনের স্বৈরতান্ত্রিক কাঠামোকে ভেঙে ফেলতে হবে। রাকসু কার্যকর করে ছাত্র প্রতিনিধি দ্বারা সিনেট পূর্ণাঙ্গ করে সিনেট সদস্যদের মতামতের ভিক্তিতে উপাচার্য নির্বাচনসহ প্রশাসনিক কার্যক্রম চালাতে হবে। সর্বোপরি ক্যাম্পাসে গণতান্ত্রিক কাঠামো বিনির্মাণ করতে হবে।

সালমান শাকিল/আরএআর/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]