আ.লীগের কার্যালয় শিবিরমুক্ত করার দাবি

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি গাইবান্ধা
প্রকাশিত: ০৬:০৩ এএম, ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭
আ.লীগের কার্যালয় শিবিরমুক্ত করার দাবি

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় নলডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয় জামায়াত-শিবির মুক্ত করা ও সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম নয়নের স্বেচ্ছাচারিতাসহ অনিয়মের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ। সংবাদ সম্মেলনে গত শনিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনায় তরিকুল ইসলাম নয়নকে দায়ী করা হয়।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে নলডাঙ্গা বাজারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মো. চাঁন মিয়া, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. শাহীন চোকদার ও যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক শাহরিয়ার ইসলাম রাসেল সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন।

লিখিত বক্তব্যে তারা উল্লেখ করেন, বর্তমানে নলডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীসহ নাশকতা ও বামনডাঙ্গার চার পুলিশ হত্যার আসামিরা নিয়মিত ওঠাবসা করে। নলডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নলডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম নয়নের প্রশ্রয়ে এমনটি হচ্ছে। এতে করে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

তরিকুল ইসলাম নয়নের ভাই মনিরুল ইসলাম রতন ও মমিনুল ইসলাম চন্দন জামায়াতের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। বিভিন্ন সময়ে মনিরুল ইসলাম রতন ও মমিনুল ইসলাম চন্দনের সঙ্গে আরও জামায়াত ও শিবিরের নেতাকর্মীরাও আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আসেন। তাদের নামে নাশকতাসহ বিভিন্ন ধরনের একাধিক মামলা রয়েছে। তাই তাদেরকে রক্ষার জন্য এমনটি করছেন তরিকুল ইসলাম নয়ন। এতে দলের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে।

এছাড়া এলাকার বিভিন্ন সমস্যা ও উন্নয়ন এবং দলীয় কার্যালয় সম্পর্কে এসব কথা গত শনিবার সন্ধ্যায় নলডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে গাইবান্ধা-৩ (সাদুল্লাপুর-পলাশবাড়ী) আসনের সংসদ সদস্য ডা. মো. ইউনুস আলী সরকারকে বলতে গেলে তাদের উপর হামলার চেষ্টা করেন তরিকুল ইসলাম নয়ন ও তার সমর্থকরা। এই হামলার তীব্র প্রতিবাদ এবং দলীয় কার্যালয়কে জামায়াত-শিবির মুক্ত করতে জেলা পর্যায়ের ঊর্ধ্বতন নেতাকর্মীদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন নলডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহবুব আলম শান্তু, ইউনিয়ন যুবলীগের আহ্বায়ক ওয়াদুদ ইসলাম দুদু, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক মো. আহম্মদ আলী, ইউনিয়ন তাঁতী লীগের আহবায়ক আব্দুল মাজেদ সরকার ও যুগ্ম-আহ্বায়ক মো. মোরশেদ মিয়া, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাহিন মিয়া, নলডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মো. ফারুক মিয়া প্রমুখ।

রওশন আলম পাপুল/এফএ/পিআর