ইউএনওর গাড়ি বলে কথা!

উপজেলা প্রতিনিধি শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ)
প্রকাশিত: ০৯:৪৮ এএম, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৭

নিয়ম অমান্য করে হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে রেলওয়ে প্ল্যাটফর্মে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) সরকারি গাাড়ি ওঠানোর ঘটনায় তুমুল সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে গাড়িটি শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের প্ল্যাটফর্মে স্টেশন মাস্টারের কক্ষের সামনে নেয়া হয়।

স্থানীয়রা জানান, রাতে ইউএনওর স্বজনরা সরকারি গাড়িতে করে উপবন এক্সপ্রেসে ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে প্ল্যাটফর্মে আসেন। প্ল্যাটফর্মে যাত্রীদের অবস্থানের জায়গায় গাড়ি ওঠানো নিয়ম বহির্ভূত হলেও তারা গাড়িটি নিয়ে সেখানে অবস্থান করেন। এ নিয়ে স্থানীয় লোকজনের মাঝে আলোচনার ঝড় বইছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও শুরু হয়েছে এ নিয়ে সমালোচনা।

শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে জংশনের আশপাশের ব্যবসায়ী ও বাসিন্দারা বলেন, রেলওয়ে প্ল্যাটফর্মে গাড়িতো দূরের কথা মোটরসাইকেল বা বাইসাইকেলই তুলতে দেন না রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু একজন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার গাড়ি সেখানে অবস্থান করল এটা দুঃখজনক।

এ ব্যাপারে শায়েস্তাগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সাজিদুল হক বলেন, প্ল্যাটফর্মে গাড়ি ওঠানো আইন বহির্ভূত। ইউএনও’র গাড়িটি বেশ কিছুক্ষণ সেখানে অবস্থান করেছিল। তবে গাড়িতে ইউএনও ছিলেন না।

এ ব্যাপারে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জসিম উদ্দিন বলেন, আমার ভাই-বোনদেরকে ড্রাইভার রাতের উপবন এক্সপ্রেসে তুলে দেয়ার জন্য নিয়ে যায়। প্ল্যাটফর্মে গাড়ি ওঠানো আইন বহির্ভূত বিষয়টি হয়তো তারা জানে না। আমি থাকলে এই অনিয়মটা হতো না।

কামরুজ্জামান আল রিয়াদ/আরএআর/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :