শিমুলিয়া ঘাটে পারের অপেক্ষায় ৪ শতাধিক যানবাহন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাদারীপুর
প্রকাশিত: ০১:২৪ পিএম, ২২ জানুয়ারি ২০১৮

মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি-শিমুলিয়া নৌ পথের শিমুলিয়া ঘাটে ফেরি পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে চার শতাধিক যানবাহন। এর মধ্যে পণ্যবাহী ট্রাক, প্রাইভেটকার ও বাসের সংখ্যাই বেশি। ঘন কুয়াশার কারণে রোববার দিবাগত রাত ২টা থেকে এই রুটে ৯ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার ফলে ঘাটে যানবাহনের চাপ বেড়েছে।

এদিকে ঘন কুয়াশার কারণে রাতে মাঝপদ্মায় ছয়টি ফেরি নোঙর করে রাখা হয়। সকালে ফেরি চলাচল শুরু হওয়ায় নোঙরে থাকা ফেরিগুলো মাঝপদ্মা থেকে যাত্রী ও যানবাহন নিয়ে চলাচল শুরু করে। আটকে থাকা ফেরিগুলো একসঙ্গে শিমুলিয়া ও কাঁঠালবাড়ি ঘাটে পৌঁছায়। তখন শাহ মগদুম, শাহপরান, ফেরি ক্যামেলিয়া, এনায়েতপুরি, বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর, ফেরি কুমিল্লা,ও একটি টানা ফেরিসহ ছয়টি টানা ফেরিতে পরিবহন লোড শুরু হয়।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. খালেদ নেওয়াজ জানান, ঘন কুয়াশার কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে ৯ ঘণ্টা ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। এ সময় মাঝপদ্মায় পাঁচটি ফেরি নোঙর করে রাখা হয়। সকালে ফেরি চলাচল শুরু হওয়ার পর নোঙরে রাখা ফেরিগুলো গন্তব্যের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। বর্তমানে এ রুটে ১৬টি ফেরি চলাচল করছে। ঘাট এলাকায় পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে চার শতাধিক যানবাহন। এর মধ্যে পণ্যবাহী ট্রাক, প্রাইভেটকার ও বাসের সংখ্যাই বেশি। ফেরি চলাচল সচল হওয়ায় ধীরে ধীরে গাড়ির চাপ কমে আসবে বলে জানান তিনি।

নাসিরুল হক/আরএআর/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :