প্রধানমন্ত্রীর আগমনে নিরাপত্তার চাদরে ঠাকুরগাঁও

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঠাকুরগাঁও
প্রকাশিত: ০৬:৫৫ পিএম, ২৮ মার্চ ২০১৮

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামীকাল বৃহস্পতিবার ঠাকুরগাঁওয়ে আসছেন। এ উপলক্ষে নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা পড়েছে ঠাকুরগাঁও। পুুলিশ, র‌্যাব ও বিভিন্ন বাহিনীর সমন্বয়ে পুরো শহরজুড়ে তৈরি করা হয়েছে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা বেষ্টনি। পাশাপাশি তৎপর রয়েছেন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরাও।

প্রধানমন্ত্রী বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় হেলিকপ্টারযোগে ঠাকুরগাঁও বিজিবি সেক্টর মাঠে অবতরণ করবেন। এরপর বিকেল ৩টায় ঠাকুরগাঁও সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় বড়মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় যোগদান করবেন প্রধানমন্ত্রী।

media

এ নিয়ে পুরো শহরে চেকপোস্টের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। পুলিশের নিয়মিত রাত্রিকালীন অভিযান আরও জোরদার করা হয়েছে। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর জনসভার মাঠে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এ জনসভাকে ঘিরে সভাস্থলের আশপাশের বিভিন্ন সংযোগ সড়কে যানবাহন চলাচলে নির্দেশনাও দিয়েছে ঠাকুরগাঁও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় রংপুর বিভাগের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে মানুষজন আসবেন। তাই প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার স্বার্থে এবং জনসভায় নির্বিঘ্ন ও শৃঙ্খলা আনার লক্ষে পুলিশের পক্ষ থেকে বিভিন্ন ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

media

এদিন ট্রাফিক ব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখার লক্ষে দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড় মহাসড়ক দিয়ে জনসভা অভিমুখি যানবাহনমূহ সিটি বাইপাস হয়ে পৌর এলাকার বাইরে পার্কিং হবে। তবে স্টিকারযুক্ত গুরুত্বপূর্ণ গাড়িগুলো জনসভা সংলগ্ন স্কুল-কলেজের মাঠে পার্কিংয়ের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এছাড়া নিরাপত্তার স্বার্থে ঠাকুরগাঁও পৌর এলাকায় গুরুত্বপূর্ণ এলাকাসমূহ যানজট মুক্ত রাখার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনসভাস্থলে যাওয়ার আধা ঘণ্টা আগে থেকে ভেন্যুতে চলাচলের রুটটি জনসাধারণের চলাচলের জন্য পুরোপুরি নিয়ন্ত্রিত রাখা হবে। এ ব্যাপারে তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রধানমন্ত্রী ঠাকুরগাঁও সফরকালে ৩৩টি প্রকল্পের উদ্বোধন ও ৩৩টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তুরেরর উদ্বোধন করবেন বলে জানান ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক আখতারুজ্জামান।

রিপন/এমএএস/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :