কুমিল্লায় প্রকাশ্যে নৌকায় সিল, ককটেল নিক্ষেপ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি কুমিল্লা
প্রকাশিত: ১১:০৪ এএম, ২৯ মার্চ ২০১৮

কুমিল্লার ৮টি ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ভোটগ্রহণ চলছে। ৮টি ইউনিয়নের মধ্যে বরুড়ার ৩টি ও বুড়িচংয়ের ১টি ইউনিয়নে পূর্ণাঙ্গ এবং ব্রাক্ষণপাড়ার ২টি, নাঙ্গলকোট এবং তিতাসের একটি ইউনিয়নে সদস্য পদে নির্বাচন হচ্ছে। অধিকাংশ ভোটকেন্দ্রে একেবারে কম ভোটার উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

জেলার বরুড়ার ৯নং দক্ষিণ শিলমুড়ি ইউনিয়নের ৯টি ভোটকেন্দ্র থেকে বিএনপি প্রার্থী শাহ আলমের এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। সকাল পৌনে ৯টার দিকে ওই ইউনিয়নের বাশপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গিয়ে তিনি জানান, সকল কেন্দ্র থেকে তার এজেন্টদের নৌকার সমর্থকরা বের করে দিয়েছে। এছাড়াও কেন্দ্রের বাইরে তার সমর্থকদের কেন্দ্রে যেতে বাধা দেয়া হচ্ছে। এ সময় কেন্দ্রের অদূরে নৌকার সমর্থকদের রাস্তায় মহড়া দিতে দেখা গেছে।

এদিকে সকাল সাড়ে ৯টার লগ্নসার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং সকাল ১০টা ৬ মিনিটে জয়কামতা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায় অনেকটা ভোটারশূন্য। ভোটাররা জানান, শিলমুড়ি উত্তর ইউনিয়নের জয়কামতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে ককটেল বিস্ফোরণ হলে যা ভোটার ছিল তারাও ভয়ে কেন্দ্র ছেড়ে চলে গেছে।

jagonews24

ওই ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী এনায়েত উল্লাহ খান (হোন্ডা) অভিযোগ করেন, ওই কেন্দ্রে নৌকার সমর্থকরা প্রকাশ্যেই নৌকা প্রতীকে সিল মেরে বাক্স ভর্তি করলেও পুলিশ পরিদর্শক নাজমুল ও এসআই মোয়াজ্জেম এবং ভোটগ্রহণ কর্মকর্তারা পদক্ষেপ নেননি।

এ বিষয়ে ওই কেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার ও বরুড়ার পয়ালগাছা কলেজের অধ্যাপক সুনীল লেশ মজুমদার জানান, এসব সিলমারা ব্যালট বাতিল করা হবে।

জেলা নির্বাচন অফিসার অফিসার মো. খোরশেদ আলম মুঠোফোনে জানান, কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম থাকলেও কোথাও বড় ধরনের সমস্যা হয়নি, শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চলছে।

কামাল উদ্দিন/এফএ/আরআইপি