পরীক্ষা হলে ছাত্রীদের বিয়ে করার কথা বললেন শিক্ষক

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি কুড়িগ্রাম
প্রকাশিত: ১০:০২ পিএম, ০২ এপ্রিল ২০১৮
ফাইল ছবি

কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলায় এইচএসসি পরীক্ষা হলে ছাত্রীদের পরীক্ষা বাদ দিয়ে বিয়ে করে ফেলার পরামর্শ দিয়েছেন দুইজন শিক্ষক।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত শিক্ষকদের শাস্তি দাবি করে অধ্যক্ষের কক্ষে বিক্ষোভ করে অভিভাবকসহ শিক্ষার্থীরা। সেইসঙ্গে শিক্ষক ও অভিভাবক মহলে এ নিয়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার দুপুরে চিলমারী ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে বাংলা পরীক্ষা চলাকালীন ছাত্রীরা অতিরিক্ত কাগজ চাইলে দুইজন শিক্ষক অতিরিক্ত পাতা না দিয়ে উল্টো পরীক্ষা ছেড়ে বিয়ে করে ফেলার মতো অাপত্তিকর মন্তব্য করেন।

এরকম অযাচিত কটূক্তিতে ক্ষুব্ধ হয়ে ছাত্রীরা হলেই কান্নাকাটি শুরু করে দেয়। পরীক্ষা শেষ না করেই ছাত্রীরা বের হয়ে এলে, কেন্দ্রের সুপারভাইজার আব্দুল হালিম বিষয়টি সুরাহা করবেন, এমন আশ্বাস দিয়ে পরীক্ষার্থীদের আবার হলে ফেরত পাঠান।

পরীক্ষা শেষে অভিভাবকরা বিষয়টি জানতে পেরে অভিযুক্ত শিক্ষকদের শাস্তি দাবি করে অধ্যক্ষের কক্ষে বিক্ষোভ করে। এ সময় কেন্দ্রটির ভারপ্রাপ্ত কেন্দ্র সচিব আব্দুল হাকিম ঘটনার সুষ্ঠু সমাধানের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত পরীক্ষক আরাতুজ্জামান ও কবিরুল ইসলাম কবির এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে চিলমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মির্জা মুরাদ হাসান বেগ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নাজমুল/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :