বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে সন্তানের মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ১১:০৩ এএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৮
বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে সন্তানের মৃত্যু

নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার খবির মিয়ার বাজারে সন্ত্রাসীর গুলিতে মিশকাতুর রহমান নীরব (১০) নামে এক মাদরাসা ছাত্র নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছে নীরবের বাবা মিরাজ উদ্দিন।

নিহত নীরব রহমানিয়া মাদরাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র ও পৌর এলাকার ৪নং ওয়ার্ডের বেজুগালিয়া গ্রামের বাসিন্দা।

এ সময় সন্ত্রাসীদের লাঠি ও অস্ত্রের আঘাতে নীরবের মা শেফালী বেগম ( ২৮), রাশেদুল হক নান্টু (৩৫) ও শাহাদাৎ হোসেন (৩০) আহত হয়েছেন।

আহতদের হাতিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে নীরব ও তার বাবাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। কিন্তু সেখানে নীরবকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

স্থানীয়রা জানায়, হাতিয়া পৌর এলাকার খবির মিয়ার বাজারে রোববার রাত ৯টার দিকে একদল সন্ত্রাসী অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। তাদের হামলায় রাশেদুল হক নান্টু ও শাহাদাৎ হোসেন আহত হয়। সন্ত্রাসীদের ধাওয়া খেয়ে নীরবের বাবা মিরাজ উদ্দিন বাজারের নিকটবর্তী বেজুগালিয়া গ্রামে তাদের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। সন্ত্রাসীরাও তার পিছু নিয়ে বাড়িতে এসে এলাপাতাড়ি গুলি করতে থাকে। এ সময় নিরবের বাবা মেরাজ উদ্দিন গুলিবিদ্ধ হন। মিরাজ উদ্দিনের চিৎকারে তাকে বাঁচাতে নীরব ও তার মা শেফালী এগিয়ে এলে নীরবও গুলিবিদ্ধ হয়।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জান শিকদার জানান, নিহতের মরদেহ ময়নাতদেন্তর জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে রাখা হয়েছে। মিরাজ উদ্দিনকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

মিজানুর রহমান/এফএ/আরআইপি