সেই তুফান সরকারের ভাই ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ১১:২২ এএম, ১৩ জুলাই ২০১৮ | আপডেট: ০১:১৪ পিএম, ১৩ জুলাই ২০১৮
ফাইল ছবি

বগুড়ায় ধর্ষণের পর কিশোরী ও তার মায়ের মাথা ন্যাড়া করে দেয়া শ্রমিক লীগের সেই বহিষ্কৃত নেতা তুফান সরকারের বড় ভাই পুতু সরকার (৪৫) বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

পুলিশের দাবি, বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে শহরের ভাটকান্দি ব্রিজের পূর্ব মাথায় দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর বন্দুকযুদ্ধে পুতু সরকারের মৃত্যু হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ওয়ান শুটার গান, পাইপ গান, আট রাউন্ড গুলি ও পাঁচশ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়।

শুক্রবার জেলার মিডিয়া সেলের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সনাতন চক্রবর্তী জানান, ভাটকান্দী ব্রিজের পূর্ব মাথায় দুই দল মাদক বিক্রেতা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে। এমন খবর পেয়ে শহরের বনানী ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর তারিকুলের নেতৃত্বে সদর থানার একদল পুলিশ সেখানে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক বিক্রেতারা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়তে থাকলে তারা পালিয়ে যায়।
পরে ঘটনাস্থলে থেকে একজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানায় নিহত পুতুর বিরুদ্ধে বগুড়া সদর ও শিবগঞ্জ থানায় পাঁচটি মাদক মামলা রয়েছে। তিনি জেলার তালিকাভুক্ত একজন শীর্ষ মাদক বিক্রেতা।

এর আগে একটি মামলায় তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। সম্প্রতি তিনি জামিনে মুক্ত হয়ে কারাগার থেকে বের হন।

লিমন বাসার/এফএ/এমএস