অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ায় ইউপি সদস্য জেলহাজতে

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চাঁদপুর
প্রকাশিত: ১২:১২ এএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

চাঁদপুরে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার অপরাধে মো. জাহিদ হোসেন খান (৩৫) নামে এক ইউপি সদস্যকে নগদ তিন লাখ ৭৯ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে। একইসঙ্গে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। রোববার কুমিল্লার ভ্রাম্যমাণ বিদ্যুৎ আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মুজাহিদুর রহমান এ রায় দেন।

মামলার বাদী চাঁদপুর বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের সহকারী প্রকৌশলী শাহাদাত হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, সাজাপ্রাপ্ত জাহিদ হোসেন খান চাঁদপুর সদর উপজেলার ৯নং বালিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মেম্বার। তিনি তার নিজ এলাকা ঢালীরঘাটে গ্রাহকদের অবৈধভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে মোটা অংকের অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন। এ পর্যন্ত তিনি ৩২ ভোল্টের ৭০টি বাল্ব, ১০০ ওয়াট ৫৩টি, ২০০ ওয়াট ২১টি এবং দুটি সিলিংফ্যানের মাধ্যমে ১১ দশমিক ৩৮ কিলোওয়াট বিদ্যুৎ অবৈধবভাবে ব্যবহার করেছেন।

তিনি বলেন, এমন অভিযোগে আমি বাদী হয়ে গত ২০ আগস্ট কুমিল্লার বিদ্যুৎ আদালতে মামলা দায়ের করি। ওই মামলার অভিযুক্ত হিসেবে জাহিদ হোসেন খান ২৩ সেপ্টেম্বর কুমিল্লায় বিদ্যুৎ আদালতে হাজির হয়ে জামিন চান। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মুজাহিদুর রহমান তাকে তিন লাখ ৭৯ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন। একইসঙ্গে জামিন না মঞ্জুর করে তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করেন। মামলায় পরবর্তী শুনানি আগামী ২ অক্টোবর।

এ বিষয়ে বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের প্রকৌশলী মো. সাইফুল ইসলাম জাগো নিউজকে বলেন, গত ২০ আগস্ট আমরা অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগের বিষয়ে ঢালীরঘাট এলাকায় তদন্ত করতে যাই। ওই সময় অভিযুক্ত ইউপি সদস্য জাহিদ হোসেন খান দেশীয় অস্ত্রসহ ভাড়াটে সন্ত্রাসী দিয়ে আমাদের অবরুদ্ধ করে রাখে। প্রায় ৪৫ মিনিট আমাদের অবরুদ্ধ করে রাখলেও সে ব্যর্থ হয়।

তিনি আরও বলেন, অভিযুক্ত জাহিদ হোসেন খানের বিরুদ্ধ তার নিজ বাড়ি এবং তার অধীনে থাকা মসজিদ-মাদ্রাসাতেও অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার করার অভিযোগ রয়েছে। সহসাই আমরা সেখানে অভিযান চালাবো এবং এ বিষয়ে আরো একটি মামলা করা হবে।

ইকরাম চৌধুরী/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :